২ বছরের শিশুকে মেরে আলমারিতে ঢুকিয়ে রাখার অভিযোগ জেঠিমার বিরুদ্ধে

282

ওয়েব ডেস্ক, ৮ আগস্টঃ ২ বছরের শিশুকে মুখে কাপড় গুজে খুন করে আলমারিতে ঢুকিয়ে রাখার অভিযোগ শিশুটির জেঠিমার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের বোলপুরের কাশীপুর গ্রামে। এই নৃশংস ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেয়ে বোলপুর থানার পুলিশ আসে ঘটনাস্থলে। উত্তেজনা বাড়তে থাকায় বোলপুরের এসডিপিও-র নেতৃত্বে বোলপুর থানার আইসি, নানুর, ইলামবাজার, পাড়ুই থানার ওসি সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়৷ খুনের অভিযোগে আটক করা হয়েছে জেঠিমা তাজমিরা বিবিকে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, শুক্রবার বিকেল থেকেই শিশুটি নিখোঁজ ছিল। তাঁকে আশেপাশের বাড়িতে না পেয়ে বাড়ির পাশের পুকুরে জাল দিয়েও খোঁজা হয়। রাতের দিকে পরিবার থানায় নিখোঁজ ডায়রি করেন। গভীর রাতে পুলিশ আসলে সকলকেই জেরা করা হয়। তখনই সন্দেহ গিয়ে পড়ে শিশুটির জেঠিমা তাজমিন বিবির ওপর। তাঁকে জেরা করতেই ভেঙে পড়েন ওই মহিলা। তাঁর ঘরের আলমারি খুলতেই হতবাক হয়ে যান পুলিশ আধিকারিকরা। দেখা যায়, শাড়ি-চাদরের মাঝে মুখে কাপড় গোজা অবস্থায় মরে পড়ে রয়েছে শিশুটি। পারিবারিক অশান্তির জেরেই এই খুন বলে স্বীকার করেছেন তাজমিন বিবি।

কাশীপুর গ্রামের বাসিন্দা জিয়া খান কযেক বছর আগে বিয়ে করেন একই গ্রামের সম্পা বিবিকে। তাঁদের একমাত্র ছেলে আকিব। বৃহস্পতিবার শম্পার সঙ্গে তাজমিনের অশান্তি হয়। এই অশান্তির জেরেই শুক্রবার বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগে দেওয়ালে মাথা ঠুকে আকিবকে খুন করে তাজমিন। এরপর নিজের ঘরের আলমারিতে লুকিয়ে রাখেন তিনি। ইচ্ছে ছিল সুযোগ বুঝে দেহটি লোপাট করে দেবেন। এই নৃশংস ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়ায়।

খবর পেয়ে বোলপুর থানার পুলিশ আসে ঘটনাস্থলে। উত্তেজনা বাড়তে থাকায় বোলপুরের এসডিপিও-র নেতৃত্বে বোলপুর থানার আইসি, নানুর, ইলামবাজার, পাড়ুই থানার ওসি সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়৷ খুনের অভিযোগে আটক করা হয়েছে জেঠিমা তাজমিরা বিবিকে।