ঝাড়খণ্ডের রায় বিজেপি বিরোধী জোটের পক্ষে, মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন হেমন্ত সোরেন

593

ওয়েব ডেস্ক, ২৩ ডিসেম্বরঃ ঝাড়খণ্ড বিধানসভার ভোট গণনা প্রায় শেষের দিকে।এখনও পর্যন্ত যা ইঙ্গিত মিলছে তাতে বিজেপি বিরোধী জোট রাজ্যের ক্ষমতায় আসছে।সেক্ষেত্রে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার কার্যনির্বাহী সভাপতি হেমন্ত সোরেনই ঝাড়খণ্ডের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী পদে আসতে চলেছেন।প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও আদিবাসী নেতা শিবু সোরেনের ছেলে হেমন্তকে মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবিদার করেই নির্বাচনে জোট বেধে লড়েছিল জিএমএস, কংগ্রেস ও আরজেডি।

সকালে ইভিএম খোলার পর থেকেই জোর লড়াই জেএমএম জোট আর বিজেপির মধ্যে। কোনও সময় জোট এগিয়ে যাচ্ছে তো, কোনও সময় বিজেপি। তবে একটা সময় জোট অনেকটা ব্যবধানে এগিয়ে যায়। সর্বশেষ পরিস্থিতি অনুযায়ী, বিজেপি একক গরিষ্ঠ হলেও নিরঙ্কুশ গরিষ্ঠতার একেবারে কাছে জেএমএম জোট।

ঝাড়খণ্ডের রামগড় জেলার নেমরা গ্রামে ১৯৭৫ সালের ১০ আগস্ট জন্ম হয় হেমন্ত সোরেনের।২০০৫-এর বিধানসভা নির্বাচনে দুমকা আসন থেকে প্রথমবার ভোটে দাঁড়ান হেমন্ত। তাঁর দলেরই বিদ্রোহী নেতা স্টিফেন মারাণ্ডির কাছে প্রথম নির্বাচনে হেরে যান তিনি।২০০৯-এর ২৪ জুন থেকে ২০১০-এর ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যসভার সাংসদ ছিলেন তিনি।২০১০-এর সেপ্টেম্বরে অর্জুন মুণ্ডার নেতৃত্বে বিজেপি, জেএমএম, জেডিইউ, এএসজেইউ দলের জোট সরকারে উপ-মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন হেমন্ত সোরেন।২০১৩-য় তিনি ঝাড়খণ্ডের সবচেয়ে কম বয়সী মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন। ২০১৪ সালে হেমন্ত সোরেন দুটি আসন থেকে লড়াই করেছিলেন। দুমকায় পরাজিত হলেও, বারহাইট আসন থেকে জয়ী হয়ে বিধানসভায় গিয়েছিলেন সোরেন। হয়েছিলেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা।