মহাত্মা গান্ধির জন্মদিবসকে সামনে রেখে কবাডি প্রতিযোগিতা কোচবিহারে

119

সিতাই, ২ অক্টোবরঃ মহাত্মা গান্ধির ১৫০ তম জন্মদিবস উপলক্ষে কাজলীকুড়া হাই স্কুলের মাঠে অনুষ্ঠিত হল সমাজ উন্নয়ন সমিতির উদ্যোগে প্রো কবাডি লীগের চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগিতা। বুধবার এই খেলায় ছেলে ও মেয়েদের যে দুটি দল অংশ নেয় তাঁদের নামকরণ করা হয়েছিল চন্দ্রযান ২ এর অনুকরণে। এদিনের এই খেলার উদ্বোধন করেন সমাজ উন্নয়ন সমিতির সভাপতি জীবনানন্দ দাস। ছিলেন সংস্থার সম্পাদক কিংসুক দাস। অন্যদের মধ্যে  উপস্থিত ছিলেন সমিতির সদস্যবৃন্দ ও এলাকার ক্রীড়াপ্রেমী মানুষেরা।

এই প্রো কবাডি লীগে ২০১৯ এ সেরা খেলোয়াড় হিসাবে নির্বাচিত হয় টিম প্রজ্ঞানের মানিক দাস ও ববিতা বর্মন, ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় হয় সুজন বর্মন ও সঙ্গীতা বর্মন, পাশাপাশি এই খেলায় সেরা ডিফেন্ডার হন কাঞ্চন দাস ও পায়েল বর্মন, সেরা রেইডার হিসাবে মনোনীত হন মৃনাল দাস ও ববিতা বর্মন, সেরা উঠতি খেলোয়াড়ের খ্যাতাব অর্জন করেন সমীর দাস ও পম্পা দাস।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা

এদিনের এই খেলায় মুখোমুখি হয় ছেলেদের যে দুটি দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রজ্ঞান ও দল ও বিক্রম দল। অন্যদিকে একই নামে ওই খেলায় মুখোমুখি হয় মেয়েদের দল। উভয় ম্যাচেই প্রজ্ঞান বিজয়ী ও চ্যাম্পিয়ন হিসাবে বিবেচিত হয়।

ভারতের প্রাচীন খেলা কবাডি, এই খেলার প্রসারের লক্ষ্যে ও উৎসাহ প্রদানের জন্য সমাজ উন্নয়ন সমিতির পক্ষ থেকে গত ১৬ ই সেপ্টেম্বর থেকে এই প্রো লীগের আয়োজন করা হয়েছিল। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আগেই ছেলে ও মেয়েদের টিম চন্দ্রযান লীগ টেবিলের নীচে থেকে এবারের মতো প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে যায়। এদিন সবার হাতে স্মারক হিসাবে ট্রফি ও মেডেল তুলে দেওয়া হয়। পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স দলকে ট্রফি প্রদান করা হয়।

এই প্রতিযোগিতা প্রসঙ্গে সহ-সভাপতি অমিত কুমার সিনহা বলেন, আগামীতে আমরা সমাজের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজে সংস্থাকে আরো বেশি করে নিয়োজিত করার চেষ্টা করব।