রাষ্ট্রীয় আচার্য্য শিরোমনি পুরস্কার পেলেন কালিয়াচকের শিক্ষিকা তানিয়া, গর্বিত জেলাবাসী

41

বিশ্বজিৎ মন্ডল, মালদাঃ রাষ্ট্রীয় আচার্য্য শিরোমনি পুরস্কার পেলেন কালিয়াচকের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা তানিয়া রহমত। জানা গেছে, দেশের প্রতিষ্ঠিত নামি এমভিএলএ ট্রাস্টের তরফে গ্লোবাল টিচার্স কনফারেন্স আওয়ার্ড ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সারা দেশের ২৫টি রাজ্যের ১৭৫ জন শিক্ষক/ শিক্ষিকা। তাদেরকে শিক্ষাক্ষেত্রে অনবদ্য অবদানের জন্য রাষ্ট্রীয় আচার্য্য শিরোমনি পুরস্কার দেওয়া হয়। যদিও ওই পুরস্কার মঞ্চে উপস্থিত হতে পাড়েন নি কালিয়াচকের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা তানিয়া রহমত। তার পরেই গতকাল রাতে ওই শিক্ষিকার বাড়িতে এসে পৌঁছায় পুরস্কার ও মোমেন্টো এবং মানপত্র। এই পুরস্কার পেয়ে বেজায় আনন্দিত প্রাথমিক শিক্ষিকা তানিয়া রহমত সহ কালিয়াচকের মানুষ। কালিয়াচক এলাকার শিক্ষিকা তানিয়া রহমত পূর্বেই পেয়েছেন বহু পুরস্কার। শিক্ষাক্ষেত্রে অনবদ্য অবদানের জন্য শিক্ষারত্ন পুরস্কার সহ রাষ্ট্রীয় বহু পুরস্কার ঝুলিতে ভরিয়েছে। যেখানে কালিয়াচকের অসামাজিক কাজ কর্মের জন্য সারাদেশে বদনাম রয়েছে ঠিক সেই কালিয়াচকের শিক্ষিকা তানিয়া রহমতের পুরস্কার গর্বিত করছে জেলাবাসীকে।

এ প্রসঙ্গে পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষিকা তানিয়া রহমান জানান,গত বছরের ২২ শে ডিসেম্বর সেই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল মুম্বাইয়ে। চিঠি মারফত আমাকে সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার এবং পুরস্কার গ্রহণের জন্য জানানো হয়েছিল। তবে দুর্ভাগ্য সেই সময় দেশজুড়ে একটা অশান্তির বাতাবরণ চলছিল। সেই কারণেই যোগাযোগ ব্যবস্থার সঠিক সময় ছিল না। ফলে সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা আমার পক্ষে সম্ভব হয়নি। তারপর এদিন পোস্টের মাধ্যমে এসে পৌঁছেছে পুরস্কার। তবে সেই অনুষ্ঠান মঞ্চে গিয়ে পদ্মশ্রী প্রাপ্ত ডক্টর বিজয় কুমার সাহার হাত থেকে এই পুরস্কারটি নিলে আরো বেশি গর্বিত হতাম। বাড়ি এসে পৌঁছেছে রাষ্ট্রীয় আচারিয়া শিরোমনি পুরস্কারের মানপত্র, উত্তরীয়, মোমেন্ট। এই পুরস্কার আমাকে গর্বিত করেছে আমার দায়িত্ব আরো বাড়িয়ে দিল।