তিহাড় জেলে বন্দি বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা ইয়াসিন মালিকের স্ত্রীকে মন্ত্রী করল পাকিস্তান

0
86

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ১৮ অগাস্ট, ইসলামবাদ: পাক মন্ত্রীসভায় ঠাঁই পেলেন জম্মু ও কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন জেকেএলএফ-এর নেতা ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী মুশাল হুসেন মালিক। পাকিস্তানের তদারকি সরকারের ১৮ সদস্যের মন্ত্রিসভায় জায়গা পেলেন তিনি। অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী আনওয়ার-উল-হক-কাকরের নেতৃত্বাধীন সরকারের মানবাধিকার বিষয়ক দপ্তরের উপদেষ্টার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মুশালকে।

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানে আনওয়ার উল হক কাকরের তদারকি সরকারের উপদেষ্টারা শপথ নিয়েছেন। মুশাল প্রধানমন্ত্রী কাকরের বিশেষ সহযোগী হিসেবে উপদেষ্টা পরিষদে জায়গা পেয়েছেন। তিনি মূল পাক ভূখণ্ডের বাসিন্দা না হওয়ায় তাঁকে পূর্ণমন্ত্রিত্ব দেওয়া হয়নি। পেশায় চিত্রশিল্পী মুশাল ধারাবাহিকভাবে জেকেএলএফ-সহ কাশ্মীর উপত্যকায় সক্রিয় বিভিন্ন বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন এবং জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে যোগাযোগ করে চলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

জম্মু কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্টের নেতা ইয়াসিন মালিক দিল্লির তিহার জেলে বন্দি। গতবছরই জঙ্গি কার্যকলাপে যুক্ত থাকার একটি মামলায় মালিকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেও নিম্ন আদালত সাজা ঘোষণার সময় জানিয়েছিল, ইয়াসিনের মামলা ‘বিরলতম’ শ্রেণিতে পড়ে না। ফলে তাঁকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া যায় না। এ বছরের মে মাসে এনআইএ দিল্লি হাই কোর্টে মালিকের মৃত্যুদণ্ড চেয়ে আবেদন করেছে।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দা মুশালের সঙ্গে ২০০৯ সালে ইয়াসিনের বিয়ে হয়। ২০০৫ সালে মালিকের পাক সফরের সময় দু’জনের পরিচয় হয়েছিল। এ পর্যন্ত মোট দু’বার ভারতে এসেছেন মুশেল। ২০১৫ সালে তাঁর ভিসা শেষ হয়ে যায়। তারপর আর পাক নাগরিক মুশেল ভারতে আসেননি। এমনকি ভারতীয় ভিসার জন্য আবেদনও করেননি তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here