সেনা জঙ্গি সংঘর্ষে উত্তাপ্ত কাশ্মীরের কুলগাম, চলছে গুলির লড়াই

82

ওয়েব ডেস্ক, ৯ আগস্টঃ করোনা আবহের মাঝে প্রায় প্রতিদিনই উত্তাপ্ত হয়ে উঠছে সীমান্ত। রবিবারও তার ব্যতিক্রম কিছুই ছল না। জম্মু কাশ্মীরের কুলগাম জেলার সিঘানপোর এলাকায় এনকাউন্টার শুরু হয় সকাল থেকেই। সেনা জঙ্গি গুলির লড়াইয়ে সকাল থেকেই সন্ত্রস্ত এলাকার বাসিন্দারা।

জানা গিয়েছে, পুলিশ জানিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পাওয়া যায় দক্ষিণ কাশ্মীরের শিঘানপোরা এলাকায় বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী লুকিয়ে রয়েছে। সেই খবর পাওয়ার পরই এই এলাকায় পুলিশ ও নিরপত্তারক্ষীর যৌথ বাহিনী তল্লাশি অভিযান চালায়। পরিস্থিতি বুঝে যৌথ বাহিনীকে লক্ষ্য করে প্রথমে গুলি চালায় সন্ত্রাসবাদীরা। পাল্টা জবাব দিতেই শুরু হয় এনকাউন্টার। এখনও পর্যন্ত কোনও সন্ত্রাসবাদীকে ধরা যায়নি। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত যা খবর, সীমান্তবর্তী ওই এলাকায় এখনও চলছে গুলির লড়াই। সূত্রের খবর, কুলগাম এলাকায় ২-৩জন সন্ত্রাসবাদী লুকিয়ে রয়েছে। তাদের নিকেশ করার লক্ষ্যে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলেছে যৌথ বাহিনী।

এক সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে, জঙ্গিরাই প্রথম গুলি চালায় যৌথবাহিনীর ওপর। তারপরেই শুরু হয় এনকাউন্টার। এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি ধরা না পড়লেও, শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত গুলির লড়াই চলছে। এই এলাকায় দুই থেকে তিন জন জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে বলে খবর। গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছে।

অতীতেও একাধিকবার বিনাপ্ররোচনায় গোলাগুলি চালিয়ে, ভারতীয় সেনাকে ব্যস্ত রেখে, সেই সুযোগে জঙ্গি ঢুকিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে পাকিস্তান। এখনও সেই ধারা অব্যাহত। ভারতীয় গোয়েন্দাদের একটি রিপোর্ট বলছে, প্রায় ২০০ জঙ্গি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে অপেক্ষা করছে। যে কোনও সময় তারা ভারতে ঢুকে উপত্যকায় হামলা চালাবে। রিপোর্ট যে ভুল নয়, সে প্রমাণ ইতিমধ্যে মিলেছে একাধিকবার।