প্রথা মেনে বেলুড় মঠে চলছে কুমারী পুজো

140

ওয়েব ডেস্ক, ৬ অক্টোবরঃ অষ্টমীতে কুমারী পুজো। প্রথা মেনে বেলুড় মঠে অষ্টমীর দিন কুমারী পুজো হয়। কুমারীকে দেবীজ্ঞানে পুজো করাই রীতি। ‘সুভাগা রূপে পুজো করা হবে এক নাবালিকাকে।

সকাল থেকে বেলুড় মঠে ভক্ত সমাগম ৷ রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগ থেকে জানা গিয়েছে, ১৯০১ সালে স্বামী বিবেকানন্দ শুরু করেছিলেন বেলু়ড় মঠের দুর্গাপুজো। সেই বছরই কুমারী পুজোর প্রচলন করেছিলেন তিনি। মহাষ্টমীতে একই সঙ্গে ৯ জন কুমারীকে বেলুড়মঠে পুজো করা হয়েছিল। বেলুড়মঠের পুজোর প্রধান বিশেষত্ব কুমারী নির্বাচন। গোটা দেশ থেকে, এমনকী বিদেশ থেকেও কুমারী হওয়ার আবেদন আসে মঠ কর্তৃপক্ষের কাছে। মঠের অধ্যক্ষ মহারাজের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিই বাছাই করেন কুমারী।

প্রথা মেনে প্রতি বছর মহাষ্টমীতে বেলুড় মঠের মূল মন্দিরে আত্মারামের কৌটো বার করে শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণদেবের মহাস্নান করানো হয়েছে। রবিবার সকালে বেলুড় মঠের মূল মন্দিরের পাশে পুজোর মণ্ডপে কুমারী পুজোর প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। পরে দর্শনার্থীর মধ্যে ভোগপ্রসাদ বিতরণ করা হবে। সকাল থেকে বেলুড় মঠে ভক্ত সমাগম ৷

বাঙালির বাঁধ ভাঙা আবেগ আর উৎসবের উচ্ছ্বাসে দেবীপক্ষের সঙ্গে পুজো শুরু হয়ে গিয়েছে বহু আগেই৷দুর্গাপূজার সবচেয়ে আকর্ষণীয় এবং জাঁকজমকপূর্ণ দিন অষ্টমী ।সকাল থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে অঞ্জলি দিতে মানুষের ভিড়৷ আজ প্রায় কয়েক লক্ষ ভক্ত সমাগম হবে বলে দাবি বেলুড় মঠ কর্তৃপক্ষের ৷ স্থলপথে-জলপথে কড়া নজরদারি চালানো হবে ৷ স্পিডবোটে জলপথে নজর পুলিশের৷