ফের একবার মানবিকতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী

456

ওয়েব ডেস্ক,৯ জানুয়ারি: ফের একবার মানবিকতার উদাহরণ দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। নিজের পদযাত্রা থামিয়ে জায়গা করে দিলেন অ্যাম্বুলেন্সকে। এনআরসি ও সিএএ-এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসাত পর্যন্ত পদযাত্রা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পদযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন সুজিত বসু, মমতাবালা ঠাকুর এবং অন্যান্যরা।

মুখ্যমন্ত্রীর মিছিলের মধ্যেই আটকে পড়ে একটি অ্যাম্বুলেন্স। আর সেটিকে দেখামাত্রই নিজের পদযাত্রা থামিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটিকে যাওয়ার জন্য জায়গা করে দেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ৭ জানুয়ারি কৃষ্ণনগরে পথ আটকে সভা করছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এমন অবস্থায় ওই রাস্তায় আটকে পড়ে একটি অ্যাম্বুল্যান্স। ভিতরে রোগী থাকা সত্ত্বেও যাওয়ার জায়গা দিল না কেউ। বরং অ্যাম্বুল্যান্সের চালককে নির্দেশ দেওয়া হল অন্য অনেক পথ ফাঁকা রয়েছে সেখান থেকে ঘুরিয়ে নিয়ে যাওয়া হোক অ্যাম্বুল্যান্সকে।
অ্যাম্বুলেন্স চালককে দিলীপ ঘোষ বলেন, “এখান দিয়ে যেতে দেওয়া যাবে না। লোকে রাস্তায় বসে রয়েছে। ডিসটার্ব হয়ে যাবে। ঘুরিয়ে অন্য দিক দিয়ে নিয়ে যান।” এই মন্তব্যের পরই রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায়। দিলীপবাবু জানান, তিনি তাঁর উক্তি নিয়ে একটুও অনুতপ্ত নন। বরং তিনি বলেন, “অ্যাম্বুল্যান্স আটকেছি, আবার আটকাব।”

রাজ্য সভাপতি বলেন, “এসব বাজে বিষয়ে তাঁর কথা বলার সময় নেই।” তিনি আরও বলেন, “এ রাজ্যে অ্যাম্বুল্যান্সে করে নেশার দ্রব্য পাচার করা হয়। সভা বানচাল করতে ওই এলাকায় ফাঁকা অ্যাম্বুল্যান্সটি পাঠানো হয়েছিল।”