রাজবংশী ইতিহাস সমৃদ্ধ পুস্তক উদ্বোধন হল মনীষী ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার জন্মভিটায়

78

কাজল রায়, মাথাভাঙ্গাঃ মনীষী ঠাকুর রায় সাহেব পঞ্চানন বর্মা আরাধ্যা দেবী শক্তি সঞ্চারিণী মায়ের তৃতীয় বছর পূজা উপলক্ষে এদিন বিরাট আয়োজন হয় কোচবিহার খলিসামারি তে। একই সাথে উত্তরবঙ্গের ৭ টি জেলার পঞ্চানন বর্মা অনুরাগীদের একমঞ্চে নিয়ে এসে কুচবিহারের রাজবংশী ক্ষত্রিয় জাতির ইতিহাস নিয়ে এক তথ্যসমৃদ্ধ পুস্তক উদ্বোধন করা হয়। নাম “রাজবংশী ক্ষত্রিয় জাতির উৎস সন্ধানে”। গ্রন্থটির সম্পাদনা করেন কোচবিহার জেলার বিশিষ্ট শিক্ষক তথা পঞ্চানন বর্মা অনুরাগী জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি গিরীন্দ্রনাথ বর্মন।

গ্রন্থটি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, কোচবিহার এবং রাজবংশী ক্ষত্রিয় জাতির মধ্যে অঙ্গাঅঙ্গি সম্পর্ক রয়েছে। এই বিষয়ে রায় সাহেব ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার বেশ কিছু লেখা তার কাছে ছিল। বাকি গুণীজনদের মাধ্যমে বেশ কিছু তথ্য সংগ্রহ করে এই বইটি তৈরি করা হয়েছে। এই বইয়ের মাধ্যমে একদিকে যেমন রাজবংশী ক্ষত্রিয় জাতির উৎস সম্পর্কে জানা যাবে, তার পাশাপাশি জানা যাবে কোচবিহারের জাতির ইতিহাস।

এদিন পুস্তকটির উদ্বোধন করেন কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচার্য ডক্টর দেব কুমার মুখোপাধ্যায়। তার সাথে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গরত্ন ডঃ আনন্দ কুমার ঘোষ। অধ্যাপক ডক্টর মহেন্দ্র নাথ রায় উপাচার্য আলিপুরদুয়ার বিশ্ববিদ্যালয়, ডক্টর অমল কান্তি রায় প্রাক্তন যুগ্ম সচিব পশ্চিমবঙ্গ সরকার, জিতেন্দ্র নাথ সরকার সম্পাদক বঙ্গীয় রাজবংশী ক্ষত্রিয় সমিতি, বিজয় চন্দ্র বর্মন সহ এক ঝাঁক বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব বৃন্দ।