কলকাতার সরকারি হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ, বসিরহাটের করোনা রোগী

44

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনাঃ কলকাতার সরকারি হাসপাতাল  থেকে বসিরহাটের এক করোনা রোগী নিখোঁজ হওয়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বছর বাষট্টির ওই ব্যক্তির নাম ফিরোজ আলী মোল্লা। বাড়ি হাড়োয়া থানার খাসবালান্ডা পঞ্চায়েতের মাঝের আটি গ্রামে। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার উপসর্গ নিয়ে বসিরহাট হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ফিরোজ আলী মোল্লা। সেখান থেকে তাকে ১মে কলকাতা চিত্তরঞ্জন হাসপাতালের নতুন কোভিদ ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হয়। নিউটাউনে অবস্থিত ওই কোভিদ ওয়ার্ড চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট সেকেন্ড ক্যাম্পাস এর চতুর্থ তলায় ভর্তি ছিলেন। বুধবার সকাল থেকেই তার আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এমনটাই জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ফিরোজ আলীর পরিবারের দাবি নিখোঁজ হওয়ার প্রায় দুদিন পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যেবেলা সরকারিভাবে তাদেরকে এ খবর জানানো হয়। তার পরিবার এই ঘটনা বিশ্বাস করতেই চাইছে না। তাদের প্রশ্ন কিভাবে একটি করোনা আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে চারতলা থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। দ্রুত ফিরোজ আলি মোল্লাকে উদ্ধারের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন তার পরিবার। এছাড়াও যদি কেউ সন্ধান পান তাদের পরিবারের তরফে ৯৯৩৩৯৮৯৯৭২/৯০০৭৭৯২১০২ এই দুটি মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগের জন্য আবেদন জানিয়েছেন।