বেলুর মঠে মোদির রাজনৈতিক বক্তব্যে ক্ষুব্ধ রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসীরা

670

ওয়েব ডেস্ক, ১৩ জানুয়ারিঃ স্বামী বিবেকানন্দের পবিত্র ভূমিতে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির যেভাবে রাজনৈতিক ভাষণ দিয়েছেন, তাতে রামকৃষ্ণ মিশনের অধিকাংশ সন্ন্যাসীই ক্ষুব্ধ। এতটাই ক্ষোভ ছড়িয়েছে যে অনুশাসন ভেঙ্গে মুখ খুলেছেন রামকৃষ্ণ মিশনের অন্যতম সদস্য গৌতম রায়। এদিন সর্বভারতীয় এক সংবাদপত্রের প্রতিনিধির কাছে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বলেন, ‘এই দৃষ্টান্ত খুবই দুঃখজনক।’ শুধু গৌতম রায়ই নয়, মিশনের আরও বেশ কয়েকজন সদস্য বর্তমান সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দের ভূমিকায়ও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। ক্ষোভের আঁচ পেয়ে গতকাল রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ অবশ্য হাস্যকর যুক্তি দিয়ে মোদির ভাষণের দায় ঝেড়ে ফেলেছিলেন।

রামকৃষ্ণ মিশনের ক্ষুব্ধ সদস্যদের মধ্যে অন্যতম গৌতম রায় একটি সর্বভারতীয় সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষা‍ৎকারে বলেন, ‘রামকৃষ্ণ মিশনের মতো অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে রাজনেতিক বার্তা দেওয়া খুবই দুঃখজনক। দুটি বিষয় স্পষ্ট করতে চাই। রামকৃষ্ণ মিশনে পরিশোধনের সবিস্তার ও আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া রয়েছে। মোদি আনুষ্ঠানিকভাবে তা করাননি। আর দ্বিতীয় কথা হল, এখানে এসে এ ধরনের রাজনৈতিক মন্তব্য করার কোনও অনুমতি তাঁর নেই। আমার পর্যবেক্ষণ বলছে, গত কয়েক বছর ধরে আরএসএসের সঙ্গে সংযুক্ত শীর্ষ ধর্মগুরুদের এখানে এনে আসলে রামকৃষ্ণ মিশনের রাজনীতিকরণ করা হচ্ছে। সেই প্রবণতার অংশই হল মোদির সফর।’