অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের মাসিক ভাতা বন্ধ উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে

79

উত্তর ২৪ পরগনা, ১৫ সেপ্টেম্বরঃ অসহায় অবস্থায় উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসত ১ প্রজেক্টের পশ্চিমবঙ্গ অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের। প্রায় ৪ মাস থেকে তারা কোনও সন্মানিক ভাতা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ এই অবস্থায় তাদের সংসার প্রতিপালনে প্রায় অসম্ভব হয়ে পরেছে। পূজার মুখে পারিবারিক এই আর্থিক সংকট হতাশ করে তুলেছে তাদের। এই অবস্থায় উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসত ১ প্রজেক্টের পশ্চিমবঙ্গ অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকা মঞ্চের ব্লক কনভেনশন অনুষ্ঠিত হলো শনিবার।

এই কনভেনশন মঞ্চ থেকে তাদের ভাতা পাবার জন্য তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত হয়। সংগঠনের নেতৃত্বের অভিযোগ উক্ত প্রজেক্টের সি.ডি.পি.ও থেকে শুরু করে উপরের এক শ্রেণীর অফিসারের জন্য আজ প্রায় ৬০০ জন কর্মী বিগত ৪ মাস ধরে সন্মানিক ভাতা(বেতন) পাচ্ছেন না।  একই সাথে তাদের আরও অভিযোগ প্রজেক্টের অফিসার থেকে শুরু করে সমস্ত স্তরের কর্মচারীদের বেতন আটকে নেই এখানে। বিশেষ কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে এবং পরিকল্পিতভাবে এক শ্রেণীর অফিসার কর্মীদের সন্মানিক ভাতা আটকে দিয়ে অসুবিধার মধ্যে ফেলে সরকারের সঙ্গে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের সম্পর্ক নষ্ট করতে চাইছে। একটা অস্থির পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাইছেন তারা বলে সংগঠনের অভিযোগ।

এই কনভেনশন মঞ্চ থেকে দুর্গা পুজোর আগেই এখানকার প্রায় ৬০০ কর্মী যাতে তাদের বকেয়া ৪ মাসের সন্মানিক ভাতা হাতে পায় সেই ব্যাপারে রাজ্য সরকারকে হস্তক্ষেপ এবং ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আবেদন জানানোর সিদ্ধান্ত গৃহিত হয় এদিনের এই কনভেনশন থেকে।

বারাসত আইসিডিএস প্রজেক্টের প্রায় ৬০০ জন অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের এই দু:সময়ে তাদের পাশে থাকার জন্য রাজ্যের সমস্ত অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকা, রাজ্য সরকারি কর্মচারী, শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী, পঞ্চায়েত ও পৌর কর্মচারী, আশাকর্মী, প্যারাটিচার, চুক্তি ভিত্তিক বা অস্থায়ী কর্মচারী এবং সমাজের সমস্ত শ্রেণীর মানুষের কাছে আহ্বান জানান।