নৈহাটি বিস্ফোরণ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন মুকুল

180

ওয়েব ডেস্ক, ১০ জানুয়ারিঃ গতকাল দুপুরে প্রবল বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে নৈহাটি। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে শুধু নৈহাটি নয়, প্রবল বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে গঙ্গার ওপারের চুঁচুড়াও।ভেঙে পড়ে বাড়ি। যার জেরে আহতও হন কয়েকজন।পথে নেমে বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন বাসিন্দারা। বিস্ফোরণের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।কিন্তু তাতেও থামেনি বিতর্ক।বিজেপির তরফ থেকে একের পর এক বাক্যবাণ ছোঁড়া হচ্ছে। এবার তাতে যোগ দিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

তিনি এদিন দাবি করেন যে, বাজি নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে নয়, বোমা ফেটেই ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে নৈহাটিতে।এদিন এই নিয়ে টুইট করে মুকুল রায় দাবি করেন যে, ‘শুধুমাত্র বোমা শিল্পই দিনের পর দিন সমৃদ্ধ হয়ে চলেছে বাংলায়।সাতেই তিনি টুইটে আরো লেখেন, ‘বাংলার মানুষ বোকা নন। কোনটা বাজি আর কোনটা বোমা তা তাঁরা বোঝেন।’একই সঙ্গে নাম না করে মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়েরও কড়া সমালোচনা করে মুকুল রায় লেখেন, ‘আপনার শাসনকালে বাংলায় শুধুমাত্র বোমা শিল্পই আরও উন্নত হয়ে চলেছে।

অন্যদিকে, নৈহাটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ নিয়ে সরব হয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ও। রাজ্যপাল ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত দাবি করেছেন। একইসঙ্গে রাজ্য়ের আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য় সরকারকেও খোঁচা দিয়েছেন। টুইটে রাজ্য়পাল লেখেন, ‘এই বিস্ফোরণ কল্পনাতীত। কী কারণে এই গুরুতর বিস্ফোরণ ও তার তীব্রতা তা পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করে দেখা উচিত। বিশেষজ্ঞরা তদন্ত করলে সত্য উদঘাটিত হবে। বিস্ফোরণের জেরে কতটা ক্ষতি হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হোক। এই ঘটনা রাজ্যের আইনশৃঙ্খলার রক্ষাকর্তাদের চোখ খুলে দেবে বলে আশা করি।’