ট্যাপ করা হয়েছে আমার ফোনও, বিস্ফোরক অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

316

ওয়েব ডেস্ক,২ অক্টোবরঃ ছটপুজোর উদ্বোধন করতে গিয়ে ইজরায়েলি স্পাইওয়ার কাণ্ডের প্রসঙ্গ টেনে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন অভিযোগ তিনি অভিযোগ করে বলেন, ওই বিদেশী স্পাইওয়ার তাঁরও ফোনকেও ট্যাপ করেছে। এর পাশাপাশি কেন্দ্রর বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন তিনি। তিনি বলেন, কেন্দ্রের মদতেই এভাবে কারও ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করা হচ্ছে। এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁর আর্জি যত দ্রুত সম্ভব এই ব্যবস্থার সমাধান করা হোক।

শনিবার তক্তা ঘাট ও দই ঘাটের ছটপূজার উদ্বোধন অনুষ্ঠান যোগ দিয়ে এই মন্তব্যই করলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যবাসীকে ছটের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, সকলে নিরাপদে পূজা দিন। পাশাপাশি গঙ্গায় একসাথে বেশি মানুষ যাতে না নামে তাঁর সতর্ক বার্তাও দেন তিনি। এখানেই শেষ নয়, সেই সাথে তিনি বলেন, পুলিশের সাথে সবরকম সহযোগিতার আর্জিও জানান তিনি। পুজো দেওয়ার জন্য ঘাটে গিয়ে তাড়াহুড়ো করবেন না। উৎসবে শামিল হতে গিয়ে কারও যেন কোনও বিপদ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার কথাও প্রশাসনকে বলেন তিনি।

এরপরই অনুষ্ঠানস্থল থেকে নেমে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। এদিন তিনি ইজরায়েলি তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা এনএসও গ্রুপের হোয়াটসঅ্যাপে নজরদারি প্রসঙ্গে সরব হন তিনি।এবিষয়ে তিনি বলেন, মানুষের ব্যক্তিগত তথ্যের দিক থেকে এদেশ তেমনভাবে কোনও সুরক্ষাই নিচ্ছে না। কেন্দ্র ওই সংস্থার মাধ্যমে মানুষের ফোনে আড়ি পাতচ্ছে। সরকারের কাজের গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সমস্ত রকম ফোন সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতেও নজর রাখছে ওই সংস্থা। আজ আর কিছুই তো নিরাপদে নয়।এই সব কিছুর পিছনে কেন্দ্রীয় সরকারই দায়ি। তাঁরা ষড়যন্ত্র করে এসব করাচ্ছে। শুধু তাই নয় আমার ফোনও ট্যাপ করা হয়েছে। সবসময় আড়ি পাতা চালানো হচ্ছে । কীভাবে কাজ করব!’’ উল্লেখ্য, মমতার এই মতের প্রতি সহমত রেখে এই একই অভিযোগে সরব হন সোনিয়া গান্ধিও।