বিরোধীদের ওয়াকআউট, বিহার বিধানসভায় আস্থাভোটে জয়ী নীতীশ

0
70

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ১২ ফেব্রুয়ারি, পটনা: বিহার বিধানসভায় আস্থাভোটে জিতে গেলেন নীতীশ কুমার। সোমবার বিহারে ছিল আস্থাভোট। কিন্তু আস্থাভোটের আগেই কক্ষত্যাগ করেন বিরোধীরা। তার পরে ১২৯টি ভোট পড়ে এনডিএ জোটের পক্ষে।  নবমবার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পরে আস্থা ভোটে জিতে যান জেডিইউ সুপ্রিমো নীতীশ।

তাঁর পক্ষে ভোট দেন লালুপ্রসাদ যাদবের দলের তিন বিধায়কও। প্রসঙ্গত, আস্থাভোটের আগে রীতিমতো হুঙ্কার দিয়েছিলেন বিহারের সদ্য প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব। দাবি করেন, নীতীশের দলের বহু বিধায়ক তাঁর বিপক্ষে ভোট দিতে পারেন। কিন্তু সোমবার বিহারের বিধানসভায় শুরু থেকেই এনডিএ বেঞ্চে গিয়ে বসেন আরজেডির তিন বিধায়ক।

এদিন ভোটাভুটি শুরুর আগেই পদত্যাগ করেন বিহার বিধানসভার স্পিকার। তার পরে বক্তৃতা পেশ করতে উঠে নীতীশকে লাগাতার আক্রমণ করেন তেজস্বী। নীতীশকে খোঁচা দিয়ে তেজস্বী যাদব বলেন, “প্রথমত, আমি আমাদের মুখ্যমন্ত্রীকে (নীতীশ কুমার) অভিনন্দন জানাতে চাই। একটানা নবম বার মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়ে তিনি ইতিহাস রচনা করেছেন। এক মেয়াদে তৃতীয়বার শপথ নেওয়ার এমন অপূর্ব দৃশ্য আমরা দেখিনি।”

তেজস্বীকে পাল্টা তোপ দাগেন বিহারের নতুন উপমুখ্যমন্ত্রী সম্রাট চৌধুরি। এরপরই বিধানসভা ওয়াকআউট করেন আরজেডি বিধায়করা। তেজস্বীকে পালটা তোপ দাগেন বিহারের নতুন উপমুখ্যমন্ত্রী সম্রাট চৌধুরি। সাফ জানিয়ে দেন, ক্ষমতায় থাকাকালীন নিজেদের একেবারে দুর্নীতির যোগ্য উদাহরণ হিসাবে তুলে ধরেছিল আরজেডি। এদিন বক্তব্য পেশের পরে আস্থাভোট করার অনুরোধ জানান মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। সঙ্গে সঙ্গেই প্রস্তাবের তুমুল বিরোধিতা করে ওয়াকআউট করেন বিরোধীরা। ফলে প্রায় ফাঁকা বিধানসভায় আস্থাভোটে জিতে যান নীতীশ।

২৪৩ আসনের বিহার বিধানসভায় ম্যাজিক ফিগার ১২২।সম্প্রতি মহাগঠবন্ধন সরকার ছেড়ে ফের এনডিএ জোটে যোগ দিয়েছেন নীতীশ কুমার। আগের সরকার থেকে ইস্তফা দিয়ে বিজেপির সঙ্গে নতুন সরকার গঠন করেছেন। রেকর্ড নবমবারের মতো বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন। যার মধ্যে, চলতি মেয়াদেই তিনি তিন-তিনবার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন। তাঁর সঙ্গে বর্তমান সরকারে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন বিজেপির বিজয়কুমার সিনহা এবং সম্রাট চৌধুরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here