রাখি নয়, “মুখ বন্ধন” কর্মসূচী পালন হল জেলায়

61

নিজস্ব সংবাদদাতা, বালুরঘাটঃ  রাখি নয়, এ বছর মাস্কে বন্ধনের উৎসব বাংলায়। করোনা আবহে এ বার রাখির দিন “মুখ বন্ধন” কর্মসূচি পালন করছে দক্ষিন দিনাজপুর জেলার তৃনমুল কংগ্রেস।

আজ বালুরঘাট শহরের  ১২ নম্বর ওয়ার্ডের পুর বাজার থেকে দলের এই কর্মসুচী পালন করতে আসরে নামেন বালুরঘাট পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান রাজেন শীল।  মাস্ক পরিয়ে ও মিষ্টি মুখ করিয়ে তিনি তার নেত্রীর নির্দেশে এ বছর  রাখিবন্ধন উৎসব পালন করেন। এ বার করোনা আবহে নতুন শপথ এই  অদৃশ্য মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে  সবাইকে একত্রিত হয়ে লড়াইয়ে যোগসূত্রের কাজ করবে তিন পরতের এই মাস্ক।

রাখী উৎসবের দিনটিকে “সংস্কৃতি দিবস” হিসেবে পালন করা হয়। হিন্দু আর মুসলমান, একে অপরকে রাখি পরিয়ে সম্প্রীতির বন্ধনকে আরও অটুট করার শপথ নেওয়ার ঐতিহ্য জড়িয়ে রয়েছে এই দিনটিকে ঘিরে।তবে এবারের পরিস্থিতি অনান্য বছরের থেকে অনেকটাই আলাদা। করোনাভাইরাসের আবহে রাখিবন্ধন উৎসব পালন ঝুঁকিপূর্ণ।সেদিকে খেয়াল রেখে ও  উৎসবের গুরুত্ব বিবেচনা করে দিনটিকে করোনা সচেতনতার প্রচারে ব্যবহারের সিদ্ধান্ত।এ বার আর রাখি নয়।

মাস্ক বিলি করে মানুষকে সচেতন করার দিকে ঝুকেছে বালুরঘাটের প্রাক্তন পুরপ্রধান ও তার দলের কর্মী সমর্থকেরা। আজ সকাল থেকে বাজারে আসা  সাধারন মানুষ থেকে পথ চলতি মানুষের মধ্যে যাদের মুখে মাস্ক নেই তাদের কে সচেতন করার পাশাপাশি মাস্ক পড়িয়ে ও মিষ্টি মুখ করিয়ে আজকের এই দিনটি পালন করেন তারা।এ বার করোনা আবহে নতুন শপথ নেওয়ার পালা ।

বালুরঘাট পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান রাজেন শীল জানান, প্রতিবছর আমরা পুরসভায় রাখি-বন্ধন উৎসব পালন করি। রাস্তায় নেমে সাধারণ মানুষের হাতে রাখি বেঁধে দিই। এ বার দলনেত্রীর নির্দেশ মত  রাখির বদলে মাস্ক বিলি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অপরদিকে করোনা আবহে রাখির বদলে মাস্ক বিলির সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী পদক্ষেপ বলে মনে করছেন বালুরঘাট শহরের বাসিন্দাদের অনেকে।