শ্রমিকদের বকেয়া না দিয়েই ফ্যাক্টরি ছেড়ে পালিয়ে গেল মালিকরা

82

উৎপল রায়, ধূপগুড়িঃ শ্রমিকদের কাজের অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলে প্লাইউড ফ্যাক্টরি বন্ধ করে পালিয়ে গেল মালিকপক্ষ। ঘটনাটি ঘটেছে, ধূপগুড়ির মৌরঙ্গা এলাকায়। এর ফলে বিপাকে পড়েছেন প্রায় ১৭০ জন শ্রমিক। বাধ্য হয়ে সোমবার সকালে ধূপগুড়ি ফালাকাটা জাতীয় সড়ক অবরোধ করে দীর্ঘক্ষন বিক্ষোভ দেখান শ্রমিকরা। এদিকে এই ঘটনায় দীর্ঘক্ষন ওই এলাকায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে যান চলাচল। পরে পুলিশ এসে তা নিয়ন্ত্রনে আনে।    

তাদের দাবি, অবিলম্বে ফ্যাক্টরি খুলতে হবে ও তাঁদের বকেয়া টাকা ফেরত দেবার আর্জি জানান তাঁরা। সাপ্তাহিক ৮ দিনের টাকা বকেয়া রয়েছে। পাশাপাশি শ্রমিকদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন থেকে বেশ ধিলেধালাভাবে কাজ করছিলেন ওই ফ্যাক্টরির মালিকপক্ষ। শুধু তাই নয়, শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ৮ দিনের মজুরি বকেয়া পড়ে রয়েছে। শ্রমিকরা তাঁদের কিছু বলতে চাইলে তাঁরা কিছুই বলতেন না বলেও জানা গেছে।

এই ঘটনায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন শ্রমিকেরা। এদিকে তাঁরা সাপ্তাহিক ৮ দিনের মজুরি বকেয়া রেখে শ্রমিকদের না দিয়ে গতকাল রাতে ফ্যাক্টরি ছেড়ে পালিয়ে যায়। এদিন সকালে শ্রমিকেরা কাজে যোগ দিতে এলে দেখে ফ্যাক্টরিটি তালা মারা অবস্থায় রয়েছে। মালিকদের ডাকাডাকি করলে কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি। এরপরেই তাঁরা ধূপগুড়ি ফালাকাটা জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান।

এদিন ফ্যাক্টরির এক শ্রমিক বলেন, দীর্ঘ ৮ মাস ধরে কাজ করেও আমরা বেতন পাচ্ছি না। এদিকে এই অবস্থায় আমাদের ফেলে রেখে মালিকপক্ষ পালিয়ে যায়। পেটের দায়ে আমরা কাজ করি। এই পরিস্থিতিতে আমরা বিপাকে পড়েছি।