দিল্লির বুথ ফেরত সমীক্ষায় ঝাড়ুর ঝড়ে বিপর্যয়ের আশঙ্কা পদ্মশিবিরের,হ্যাট্রিকের পথে অরবিন্দ কেজরিওয়াল

918

ওয়েব ডেস্ক, ৮ ফেব্রুয়ারিঃ ধর্মের বিষ ছড়িয়েও লাভ হল না বিজেপির। সিএএ, এনআরসি ইস্যু দিল্লির মানুষকেই বোঝাতে পারল না পদ্মশিবির। যার পরিণতি হাতেনাতে পেতে চলেছে মোদি-শাহ জুটি। ভোট শেষেই ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস মাই ইন্ডিয়ার সমীক্ষায় ফের হ্যাট্রিকের পথে অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ইন্ডিয়া টুডের সমীক্ষা অনুযায়ী পশ্চিম দিল্লিতে মোট ভোটের সিংহভাগের দখলই পেতে চলেছেন আপ-এর প্রার্থীরা। তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে গেরুয়া শিবির। ভোটের শতাংশের বিচারে কংগ্রেসের অবস্থা বেশ করুণ।

তবে প্রত্যাশা মতো বিজেপি এই বুথফেরত সমীক্ষায় গুরুত্ব দিতে চাইনি। গেরুয়া শিবিরের দাবি, আগামী মঙ্গলবার ফল সম্পূর্ণ উলট হবে। যদিও আপের দাবি, বুথফেরত সমীক্ষার থেকেও আসন বাড়বে তাদের। তবে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে যে বুথ-ফেরত সমীক্ষা দেখানো হচ্ছে, তার সবক’টাতেই ইঙ্গিত, ৭০ আসন বিশিষ্ট দিল্লি বিধানসভায় কেজরিওয়ালদের দখলে থাকবে ৫০টিরও বেশি।

এবিপি নিউজ সি ভোটার বুথফেরত সমীক্ষাতেও আপ ঝড়। সমীক্ষা অনুযায়ী ৪৯-৬৩ টি আসন পাবে আপ। বিজেপির দখলে যেতে পারে ৫-১৯ টি আসন। কংগ্রেসে পেতে পারে চারটি আসন।

নিউজ এক্সের জনমত সমীক্ষায় প্রকাশ, এবারের ভোটে ৫৩-৫৭টি আসন পেতে পারে কেজরিওয়ালের দল। বিজেপি পাবে ১১-১৭টি আসন। মাত্র ২টি আসনে জয়লাভ করতে পারে কংগ্রেস।

টাইমস নাও-আইপিএসওএস সমীক্ষায় বলা হয়েছে আম আদমি পার্টি পেতে পারে ৪৪ আসন। বিজেপি পেতে পারে ২৬ আসন।

রিপাবলিক জন কি বাতের সমীক্ষায় বলা হয়েছে, মোট ৭০ আসনের মধ্যে ৪৮-৬১ পেতে পারে আম আদমি পার্টি। বিজেপির দখলে থাকতে পারে ৯-২১ আসন। কংগ্রেস পেতে পারে ১টি।

নিউজ এক্স- পোলস্টার্ট বুথফেরত সমীক্ষায় আদ আদমি পার্টির (আপ) ঝড়ের পূর্বাভাস। আপের দখলে যেতে পারে ৫০-৫৬ টি আসন। বিজেপি পেতে পারে ১০-১৪ টি আসন। সর্বাধিক দুটি আসনে জয়লাভ করতে পারে কংগ্রেস।

দিল্লির ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ পর্ব প্রায় শেষ। ১.৪৭ কোটি ভোটার নির্ধারণ করবেন প্রার্থীদের ভাগ্য। বিকেল সাড়ে পাঁচটা অবধি ৫২.৯৫ শতাংশ ভোট পড়েছে দিল্লিতে। দিল্লিতে এবারও ত্রিমুখী লড়াই। ময়দানে আম আদমি পার্টি, বিজেপি ও কংগ্রেস। ৭০টি আসনেই প্রার্থী দিয়েছে আপ। তবে শরিকদের সঙ্গে নিয়ে লড়ছে বিজেপি ও কংগ্রেস। শনিবার সকাল ৮টা থেকেই ভোট শুরু হয়ে গিয়েছিল রাজধানীতে। লড়াইটা মূলত নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের বিজেপি বনাম অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি (আপ)-র মধ্যে।

সিএএ, শাহিনবাগ, জামিয়া, জেএনইউ আবহেই শনিবার দিল্লির কুর্সি দখলের লড়াই হয়। দিল্লি নির্বাচনের প্রাক্কালেই একাধিক ইস্যু নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে অন্যান্য দলগুলি। ২০১৫ সালের মতো বুথ ফেরত সমীক্ষার আভাস সত্যি করে এবারের দিল্লি নির্বাচনেও কি উঠবে ঝাড়ু-ঝড়? স্পষ্ট হবে আগামী মঙ্গলবার।