ভারতে জাল নোট ঢোকানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তান, বলছে গোপন রিপোর্ট

110

ওয়েব ডেস্ক, ৯ অক্টোবরঃ‌ নোট বাতিলের তিন বছর হতে চলল ভারতে। ২০১৬ সালের নভেম্বরের শুরুতে কালো টাকার জোগান ও জঙ্গিদের আর্থিক মদত বন্ধ করতে ভারত সরকার হাজার ও পাঁচশো টাকার নোট বন্ধ করেছে।

তারপর বের করেছে ২ হাজার টাকার নোট। মাঝে কিছুদিন বন্ধ থাকলেও পাকিস্তান ফের জাল ভারতীয় টাকা ছাপাতে শুরু করে দিয়েছে। সেই টাকা চোরাচালান যেমন হচ্ছে, তেমনই লস্কর, জঈশ জঙ্গিদের কার্জকলাপ আরও ছড়িয়ে দিতে এই টাকা ব্যবহার করা হবে বলে গোপন রিপোর্টে জানা গিয়েছে।

উত্সবের মধ্যে নানা নাশকতামূলক কাজ করতে গিয়ে তারা ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে। এখনও উত্সবের বেশ কিছুটা বাকি। তাই এই সুযোগে নতুন ছক কষেছে পাকিস্তান। তিন বছর অতিক্রান্ত হয়েছে নোট বাতিলের। ফলে জাল টাকা ধরা পড়ে যাচ্ছে ভারতে ঢুকলেই। এইবার ভারতে জাল টাকা ঢোকাবার জন্যই বড় ধরণের ছক কষেছে পাকিস্তান বলে খবর। কেমন ধরণের ছক সেটা?

জানা গিয়েছে,ভারতের অর্থনীতিতে আঘাত হানতেই উচ্চমানের জাল নোট তৈরি করা হচ্ছে। সেই জাল নোট তুলে দেওয়া হবে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের হাতে। সেই তালিকায় জৈশ-ই-মহম্মদ ও লস্কর- ই-তৈবার নাম রয়েছে। তারা এই জাল নোট সীমান্তের এপারে পাচার করবে। এমনকী পাকিস্তান জাল নোট পাচার করার জন্য নেপাল-বাংলাদেশ সীমান্ত ব্যবহার করবে বলেও ছক কষেছে। এই ছককে বাস্তবায়িত করতে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই নেপথ্যে কাজ করবে বলেও গোয়েন্দা সূত্রে খবর।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের মে মাসে ডি-কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত ইউনুস আনসারি-সহ তিনজন পাকিস্তানের নাগরিককে কাঠমান্ডু বিমানবন্দর থেকে জালনোট সমেত গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। ফলে আবার সেই রাস্তাই খুব সন্তর্পণে ব্যবহার করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।