সাংসদ জগন্নাথ সরকার ঘনিষ্ঠ শিক্ষক বিডিও অফিসের সামনে আক্রান্ত

64

মলয় দে, নদীয়াঃ সাংসদ জগন্নাথ সরকারের ঘনিষ্ঠ শিক্ষক নেতা চঞ্চল চক্রবর্তী গতকাল দুপুর দুটো নাগাদ আক্রান্ত হন শান্তিপুর বিডিও অফিসের সামনে। তার বক্তব্য অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বিষয় নিয়ে বেশ কয়েকজন পঞ্চায়েত মেম্বার সহ এক প্রতিনিধি দল বিডিওর সাথে দেখা করে ফিরে আসার সময়, তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী তার ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে লাঠি ঘুসি কিল চড় সহ বেধড়ক মারধর করেছে।

যদিও এ বিষয়ে শান্তিপুর বি ব্লক তৃণমূল অঞ্চল সভাপতি কানাই দেবনাথ জানান, বিজেপিতে যোগদান করার প্রায় এক বছর কেটে গেলো হঠাৎ এখন তৃণমূল মারতে যাবে কেন! তাও প্রকাশ্যে বিডিও অফিসের সামনে। আসলে সিপিএম, তৃণমূল, বিজেপি সব দল করার ফলে, মানুষের কাছ থেকে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে। তাই হয় তাদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব না হয় ব্যক্তি শত্রুতার কারণে আক্রান্ত হতে পারে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগামীরা কখনো হিংসায় লিপ্ত হয় না।

এ বিষয়ে স্থানীয় বিজেপি মন্ডল সভাপতি বা বুথ সভাপতি নেতৃত্ব অবশ্যই কিছুই জানেন না বলে স্বীকারোক্তি করেন।

চঞ্চল বাবু অবশ্য রক্তাক্ত হননি, তবে বুকে ও মাথায় যথেষ্ট আঘাত পেয়েছেন বলেও তিনি দাবি করেন, সেইমতো নানাঘাট হাসপাতালে ভর্তি আছেন। লিখিত অভিযোগ করবেন বলেই জানিয়েছেন আমাদের।

সাংসদ জগন্নাথ সরকার দিল্লিতে রয়েছেন, তিনি আমাদের জানান, এটা তৃণমূল সরকারের কাছে নতুন কিছু ব্যাপার নয়, এ বাংলায় গণতন্ত্রের হত্যা হয়েছে অনেকদিন আগেই। বিডিও অফিসের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ অনুযায়ী দোষীরা শাস্তি পাবে।