পুলিশের আঙ্গুল ক্ষুর দিয়ে কেটে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ,গ্রেপ্তার ৪ বিজেপি কর্মী

443

ওয়েব ডেস্ক,২৪ জানুয়ারিঃ সিএএ’র বিরোধীতায় প্রচারে বাধা দেওয়া ও তৃণমূল কর্মীদের মারধোর শুরু করে বিজেপির কর্মীদের বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় বিজেপি কর্মীদের বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত ডিউটিরত থাকা এক পুলিশকর্মী। অভিযোগ, ক্ষুর দিয়ে ওই পুলিশকর্মীর আঙুল কেটে নেওয়ারও চেষ্টা করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। রাতেই ঘটনার জেরে গ্রেফতার করা হয় ৪ বিজেপি কর্মীকে। ঘটনার পরে হাসপাতালে ভরতি করা হয় ওই দুই পুলিশ কর্মীকে।

 জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে কলকাতার লেক থানার যোধপুর পার্ক এলাকায় বাবলু সুইটস নামে একটি মিষ্টির দোকানের সামনে তৃণমূল কর্মীরা যখন সিএএ নিয়ে প্রচার চালাচ্ছিলেন ঠিক তখনই তাঁদের আক্রমন করে জন ১০-১২ বিজেপি কর্মী। ওই তৃণমূল কর্মীদের মারধোর করার পাশাপাশি ঘটনাস্থলে থাকা একটি বাইকও ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

সেই সময় গোটা বিষয়টি নজরে পড়ে ডিউটিতে থাকা দুই পুলিশকর্মী মেঘনাথ পুরকাইত ও সনৎ নস্কর। তাঁরা এগিয়ে এসে বিজেপি কর্মীদের আটকাতে গেলে ওই বিজেপি কর্মীরা ছুরি আর ক্ষুর নিয়ে ওই দুই পুলিশকর্মীকে পাল্টা আক্রমণ করেন। শরীরে আঘাত হানার পাশাপাশি সনৎ নস্করের আঙুল ক্ষুর দিয়ে কেটে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। সেই সঙ্গে মারধরও করা হয় তাঁদের। 

 কলকাতা পুর নিগমের মেয়র পারিষদ রতন দে জানান, ‘বিনা প্ররোচনায় বিজেপি কর্মীরা তৃণমূল কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। পুলিশ বাধা দিতে গেলে ওরা পুলিশের ওপরেও চড়াও হয়। সিএএ নিয়ে বিজেপি নোংরামি করছে। এর প্রতিবাদ করা হবেই। বিজেপি আশ্রীত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত।’ হাসপাতাল সুত্রে জানা গিয়েছে, মেঘনাথের গলায় ও সনতের হাতে ক্ষুর চালানো হয়েছে।