কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

347

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪পরগনাঃ কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালও এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার ভোর রাতে বসিরহাট মহকুমার হাড়োয়া ব্লকের হাড়োয়া অঞ্চলের পূর্ব গোবেড়িয়া গ্রামে।

জানা গেছে, শনিবার গভীর রাতে রাতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন  রেখা মণ্ডল (২০)। সে বেড়াচাঁপা ডঃ শহিদুল্লাহ কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল।পরিবার সূত্রে জানা গেছে, এদিন ভোররাতে ডাকাডাকি করলে ঘুম না ভাঙায় প্রথমে বাড়ির লোকজনের সন্দেহ হয়। দীর্ঘক্ষন ডাকার পর সে দরজা না খোলায় তাঁরা ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে দেখেন পাখার সঙ্গে দড়িতে ঝুলে রয়েছে তাঁর মেয়ের মৃতদেহ।  এরপরই তাঁকে উদ্ধার করে তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় হাড়োয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা  ওই যুবতীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এবিষয়ে যুবতীর বাবা ভিনু মণ্ডল বলেন, প্রতিদিনের মতো সবকিছুই ঠিক ছিল এদিনও। রাতে খাওয়া দাওয়া সেরে নিজের ঘরে যায় আমার মেয়ে। অন্য দিনের মতো মায়ের সাথে ঘুমায় সে, এরপর কখন এই ঘটনা ঘটালও তা আমরা কোনও ভাবেই বুঝতে পারচ্ছি না।

এদিকে ঘটনার পর পরই সেখানে পৌঁছায় হাবড়া থানার পুলিশ। পরে তাঁরা এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠায়।ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে পরিবারে।  

তবে কি কারণে ওই যুবতী আত্মহত্যা করল তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রেমঘটিত কারণে নাকি অত্যধিক পড়াশোনার চাপ না বাবা মার বকুনি ফলেই এই আত্মহত্যা সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।