বড়দিনে বকখালিতে ডিউটি সেরে ফিরে, রহস্যজনকভাবে আবাসন থেকে পুলিশ আধিকারিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

155

ওয়েব ডেস্ক, ২৬ ডিসেম্বরঃ গতকাল বড়দিনে বকখালিতে খোশ মেজাজে ডিউটি করছিলেন। রাত কাটতে না কাটতেই বৃহস্পতিবার, ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনায়।

জানা গিয়েছে, বুধবার বড়দিন উপলক্ষে বকখালি ব্রিজ থেকে হেনরিজ আইল্যান্ড পর্যন্ত রাস্তার দায়িত্বে ছিলেন গৌতম বিশ্বাস নামে ওই পুলিশ আধিকারিক। ডিজে বক্স বাজানো, প্লাস্টিক ব্যবহারের বিরুদ্ধে নিজে দাঁড়িয়ে থেকে মানুষকে সচেতনতার বার্তা দিচ্ছিলেন।

এরপর রাত এগারোটা নাগাদ ডিউটি সেরে থানায় ঘুরে কোয়ার্টারে চলে যান। বৃহ্স্পতিবার অনেক বেলা হয়ে গেলেও তিনি থানায় না আসায় পুলিশকর্মীরা আবাসনে যান তাঁকে ডাকতে। অনেক ডাকাডাকি করে সাড়া না পাওয়ায় শেষে  আবাসনের জানলার কাছে যান সহকর্মীরা। তাঁরা দেখতে পান, গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলছেন গৌতমবাবু।

ইতিমধ্যে পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। জানানো হয়েছে গৌতমবাবুর পরিবারে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, মানসিক অবসাদের জেরেই আত্মঘাতী হয়েছেন ওই পুলিশ আধিকারিক।

পুলিশ সূত্রেই জানা গিয়েছে, মিশুকে স্বভাবের গৌতমবাবু মাত্র কয়েকমাস আগেই পদোন্নতির পর মন্দিরবাজার থেকে ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানার অফিসার ইনচার্জ হয়ে আসেন। সহকর্মীদের কথায়, সকলের সঙ্গেই সুসম্পর্ক ছিল গৌতমবাবুর। ফলে কম সময়ে সকলের প্রিয় মানুষ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। যে কোনও অভাব-অভিযোগেই সাধারণ মানুষ এসে দরবার করতেন তাঁর কাছে। এমন এক মানুষের হঠাৎ আত্মহত্যায় শোকের ছায়া এলাকায়। এটা আসলেই আত্মহত্যা না অন্যকিছু তাঁর তদন্তে নেমেছে পুলিশ।