দিনহাটায় ১ কোটি টাকার চোরাই এসি মেশিন ও ফ্রিজ আটক করল সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ

40

কোচবিহার, ১৭ সেপ্টেম্বরঃ দুর্গা পুজোর মুখে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া শহর দিনহাটার একটি গ্রাম থেকে চোরাই প্রায় ১০০টি এসি মেশিন ও ৫ টি ফ্রিজ উদ্ধার করল সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পায় সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ। পরে সোমবার রাতে দিনহাটার এসডিপিও মানবেন্দ্র দাস, সাহেবগঞ্জ থানার ওসি হেমন্ত শর্মা, নয়ারহাট থানার ইনভেস্টিগেশন অফিসার অভিষেক লামার নেতৃত্বে একটি টিম তৈরি করেন। সেই টিমের নেতৃত্বরা সোমবার রাতভর তল্লাশি চালিয়ে দিনহাটার আবুতারা এলাকার দুইটি বাড়ি থেকে এই ফ্রিজ ও এসি মেশিন উদ্ধার করেন। বাড়ির লোক অবশ্য পলাতক বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

এদিন জেলা পুলিশ সুপার সন্তোষ নিম্বালকার নয়ারহাট ইনভেস্টিগেশন সেন্টারে সাংবাদিক বৈঠক করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন দিনহাটার এসডিপিও মানবেন্দ্র দাস, সাহেবগঞ্জ থানার ওসি হেমন্ত শর্মা, নয়াহাট থানার ওসি অভিষেক লামা সহ আরও অনেকে। তিনি জানান, সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে বড়সড় এই সাফল্য পায়। প্রায় এক কোটি টাকার চোরাই এসি মেশিন ও ফ্রিজ আটক কোচবিহারে পুলিশের বড় সাফল্য বলেও দাবি করেন। তিনি বলেন, ফ্রিজ ও এসি মেশিন এর আনুমানিক মূল্য প্রায় এক কোটি টাকা। কোচবিহার জেলায় ধরনের ঘটনা প্রথম বলেই তার দাবি। পুলিশের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সুপার জানান।

তিনি আরো বলেন, সম্ভবত এই মালগুলি মহারাষ্ট্র থেকে আসামের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। রাস্তায় কোন চক্র সে গুলিকে সোজা নিয়ে আসে দিনহাটায়। এর সাথে যারা যারা জড়িত রয়েছে তারা সকলেই পলাতক। চক্রের পাণ্ডাদের ইতিমধ্যেই খোঁজ খবর চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। তারা সম্ভবত আসামে ঘা ঢাকা দিয়েছেন। খুব শীঘ্রই কোচবিহার পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে এই ঘটনার সাথে যুক্তদের খুঁজে বের করবে বলেও পুলিশ সুপার জানান।

সাংবাদিক বৈঠকে পুলিশ সুপার সন্তোষ নিম্বালকার

জেলা পুলিশ সুপার জানান, আবুতারার ওই দুই বাড়ি থেকে এসি মেশিনের ৯৮ টি ইনডোর মেশিন এবং ৯১ টি আউটডোর মেশিন ছাড়াও পাঁচটি ফ্রিজ সেখান থেকে তারা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়া পুলিশের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রের পুলিশের সাথে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।