রাসমেলায় থাকছে না মৃত্যুকুপ, প্রশাসনিক সিদ্ধান্তকেই মান্যতা দেবে কোচবিহার পৌরসভা

18

কোচবিহার,১১সেপ্টেম্বরঃএবারের রাসযাত্রায় ৪৮ টাকা বাজেট বৃদ্ধি হল দেবত্র ট্রাস্ট বোর্ডের। বুধাবার কোচবিহারের শারদীয়া উৎসব ও রাসমেলাকে সামনে রেখে এক প্রশাসনিক স্তরে বৈঠক হয় ল্যান্সডাউন হলে। এদিনের এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক কৌশিক সাহা, কোচবিহার পৌরসভার চেয়ারম্যান ভূষণ সিং সহ প্রশাসনিক আধিকারিকরা।

কোচবিহারের অন্যতম ঐতিহ্য রাসযাত্রা। কার্তিকী পূর্ণিমায় এই রাসযাত্রার সূচনা হয় কোচবিহার মদনবাড়িতে। মহারাজাদের কুলদেবতা মদনমোহনের রাসযাত্রা উপলক্ষে পক্ষকাল ব্যাপী মেলার আয়োজন হয় কোচবিহার শহরের একাংশ জুড়ে, যা পরিচালনা করে থাকে কোচবিহার পৌরসভা। এবারের রাসমেলাকে আরও বেশী আকর্ষিত করে তোলার কথা ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসনের কর্তারা।

এবারে মেলার স্টল গুলিতে গুলিতে থাকছে নম্বরের ব্যবস্থা, পাশাপাশি কড়া নজর দেওয়া হবে মেলার অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাতেও। এছাড়াও মেলাকে কেন্দ্র করে ঢেলে সাজানো হবে ট্রাফিক ব্যবস্থাও। মেলা অঙ্গনে যাতে কোনও শিশু ভিক্ষাজীবি না থাকতে পারে তার জন্য নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ। এবারেও মেলার মধ্যে থাকছে না মৃত্যুকুপ।

কোচবিহার পৌরসভার পৌরপ্রধান ভূষণ সিং জানান, রাসমেলাকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য প্রশাসনিক স্তরে বৈঠক হয়। মেলাকে আরও ভালো ভাবে পরিচালনা করার জন্য আমরা সকলের সহযোগিতা চাইছি। এক প্রশ্নের উত্তরে ভূষণবাবু বলেন মৃত্যুকুপ নিয়ে প্রশাসনের আপত্তি রয়েছে। তাই আমরা প্রশাসনিক সিদ্ধান্তকেই মেনে নেব।

এদিনের এই বৈঠক শেষে জেলা শাসক কৌশিক সাহা জানিয়েছেন, গতবারের চেয়ে এবছর দেবত্র স্ট্রাস্ট বোর্ড আয়োজিত রাসযাত্রায় ৪৮ হাজার টাকা বৃদ্ধি হয়েছে। ঐতিহ্য সংহতির এই মিলন উৎসব আরও সুদৃশ্য ও মসৃন করে পরিচালনা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

একই সাথে আসন্ন শারদ ও দীপাবলি উৎসব নিয়েও বিভিন্ন পুজো কমিটির সাথে একটি পৃথক বৈঠকও হয় ল্যান্সডাউন হলে।