নন নেট ফেলোশিপের দাবিতে অনশনে নামল বিশ্বভারতীর গবেষক পড়ুয়ারা

9

শান্তিনিকেতনে, ২১ সেপ্টেম্বরঃ ফের নন নেট ফেলোশিপের দাবিতে অনশনে নামলো বিশ্বভারতীর গবেষক পড়ুয়ারা। আজ সকালে শান্তিনিকেতনে সেন্ট্রাল অফিসের সামনে তারা একাধিক দাবিদাওয়া নিয়ে বিভিন্ন পোস্টার হাতে নিয়ে ও বিভিন্ন স্লোগান তুলে এই অনশনে সামিল হয়। জানা গেছে, এই অনশন চলাকালীন দুপুর ১ টা নাগাদ এক ছাত্রী অসুস্থ হয়ে ওঠে।

গবেষক পড়ুয়াদের অভিযোগ, অনেকদিন ধরেই বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণেই তারা তাদের ফেলোশিপের টাকা পাচ্ছে না। কিন্তু অন্য কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ের গবেষক পড়ুয়ারা সেই ফেলোশিপের টাকা পাচ্ছে। কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে প্রায় আড়াইশো জন নতুন ও পুরোনো গবেষক ছাত্র ছাত্রী তাঁদের আঠারো মাসের নন নেট ফেলোশিপের টাকা এখনও পর্যন্ত পায়নি। তারা এই অভিযোগ বিশ্বভারতী কতৃপক্ষের কাছে একাধিকবার করলেও ওনারা শুধু আশ্বাস দিয়ে গিয়েছেন। কিন্তু  কোন কার্যকর করছেন না।

গবেষক পড়ুয়াদের দাবি,, অবিলম্বে গবেষকদের সমস্ত বকেয়া ফেলোশিপ মেটাতে হবে। এই নিয়ে কোনরকম টালবাহানা চলবে না। পুজোর আগেই ২০১৮ সালে ভর্তি হওয়া গবেষকদের ফেলোশিপ চালু করতে হবে। ২০১৯ সালে ভর্তি হওয়া গবেষকদের বিশ্বভারতী কোন অধিকারে মুচলেকা আদায় করে,যে তাঁরা ভবিষ্যতে ফেলোশিপ দাবি করতে পারবে না! প্রত্যেক মাসের ফেলোশিপ প্রত্যেক মাসেই দিতে হবে।

গবেষণারত এক শিক্ষার্থী জানায়,“এই টাকাটা পেলে পড়াশোনার খরচ চালাতে অনেকটা সুবিধা হয়। এই ফেলোশিপের টাকা যদি বিশ্বভারতী কতৃপক্ষ না পাইয়ে দেয় তাহলে আমরা বৃহত্তম আন্দোলনে সামিল হবো।