পথ দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যুতে রণক্ষেত্র খিদিরপুর, বাসে আগুন ক্ষুব্ধ জনতার

50

ওয়েব ডেস্ক, ১০ জানুয়ারিঃ সড়ক দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র চেহেরা নিল খিদিরপুর।পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের পরে ৩টি বাসে আগুন জ্বালিয়ে দিল ক্ষিপ্ত জনতা। বৃহস্পতিবার দুপুরে খিদিরপুরের রিমাউন্ট রোডে পথ দুর্ঘটনায় এক পথচারী যুবকের মৃত্যু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দুটি বাসের রেষারেষির মাঝে পড়ে তিনি প্রাণ হারান।ঘটনার জেরে ক্ষিপ্ত জনতা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা একাধিক গাড়ি ভাঙচুর করে। পর পর তিনটি বাস ভাঙচুর করার পরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।

শুক্রবার বেলা একটা নাগাদ খিদিরপুরের রিমাউন্ট রোড দিয়ে যাচ্ছিল ১২সি, ১২সিএ/১/এ এবং ২৫৯ বাস। যাত্রী তোলার জন্য দু’টি বাস রেষারেষি করছিল। সেই সময় অরুণ ভার্মা নামে এক যুবক ওই রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। বেপরোয়া গতিতে আসা একটি বাস সজোরে ওই যুবককে ধাক্কা মারে। তিনি ছিটকে কিছুটা দূরে গিয়ে পড়েন। তাঁর মাথার উপর দিয়ে চলে যায় বাসটি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের। দুর্ঘটনার পরই উত্তেজিত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা।

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী। উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পালটা পুলিশকে লক্ষ্য করে উত্তেজিত জনতা ইট ছোঁড়ে। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী জখম হয়েছেন। তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আপাতত দুর্ঘটনায় নিহত ওই যুবকের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।