বেতন-বৃদ্ধি প্রসঙ্গ উঠতে পারে আজ, রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে

27

ওয়েব ডেস্ক, ২৩ সেপ্টেম্বরঃ আজ রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর নেতাজী ইন্ডোরে তৃণমূলপন্থী সরকারি কর্মচারীদের সংগঠনের এক অনুষ্ঠানে এসে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, সরকারি কর্মচারীদের নয়া পে কমিশন নিয়ে ২৩ তারিখ রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।আজ বিকেল ৩ টায় বৈঠক। তার আগে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের চোখ নবান্নের দিকে।

বেতন ছাড়াও কর্মচারীরা গ্র্যাচ্যুইটি এবং বাড়িভাড়া নিয়ে বিশেষ আগ্রহী। কর্মচারী সংগঠনগুলির বক্তব্য, গ্র্যাচ্যুইটির অঙ্ক বৃদ্ধি করে দ্বিগুন করা হোক। এখন সর্বোচ্চ অঙ্ক ছয় লাখ টাকা। কর্মচারী সংগঠনগুলির আশঙ্কা, গ্র্যাচ্যুইটির অঙ্ক ততটা বাড়ছে না। একইভাবে এবার বাড়িভাডার অঙ্ক ১৫ শতাংশ থেকে কমে ১২ শতাংশ হতে পারে।

এদিন মন্ত্রিসভার নেওয়া সিদ্ধান্ত আইন হয়ে আগামী ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে বলে ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ফলে রাজ্য ও রাজ্যের বাইরের কয়েকলক্ষ সরকারি কর্মীরা অধীর আগ্রহে তাকিয়ে রয়েছে আজ রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের দিকে। কারণ, ওই বৈঠকের পরেই সরকারি সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে।

পাশাপাশি ওই দিনই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, পে কমিশনের সুপারিশ মেনেই বাড়বে সরকারি কর্মীদের ন্যূনতম বেসিক পে। সাত হাজার থেকে বেড়ে ন্যূনতম বেসিক পে হবে ১৭ হাজার ৯৯০ টাকা। একই সঙ্গে বাড়ছে গ্র্যাচুইটির পরিমাণও। গ্র্যাচুইটির সর্বোচ্চ সীমা ৬ লক্ষ টাকা থেকে বেড়ে হবে ১০ লক্ষ টাকা। এর জন্য সরকারের বাড়তি ১০ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন।