‘ধোনি’ সার্চ করলেই বিকল হবে আপনার ফোন…

423

ওয়েব ডেস্ক, ২৩ অক্টোবরঃ মহেন্দ্র সিং ধোনি। ভারতীয় ক্রিকেটের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। ধোনিকে পছন্দ করেন না, এমন ভারতীয় বোধহয় খুব কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। অনেকেই নিজেদের মোবাইল ফোনের ইন্টারনেট সার্চ করে ধোনির ছবি সেভ করেও রাখেন। কিন্তু, এবার সাবধান। ধোনির নাম দিয়ে কিছু সার্চ করতে গেলেই আপনার ফোনটি চলে যেতে পারে ভাইরাসের কবলে। হতে পারে বিকলও।সম্প্রতি অ্যান্টি-ভাইরাস সংস্থা ম্যাকাফে তাঁদের বার্ষিক রিপোর্টে জানিয়েছে ধোনি ভারতে সবথেকে বেশি সার্চ হয়৷ আর সুযোগ বুঝে হ্যাকাররাও বিভিন্ন ভাইরাস এই সার্চে ঢুকিয়ে দিচ্ছে৷ সেইসব ভাইরাস নিঃশব্দেই ঢুকে পড়ছে ব্যবহারকারীর স্মার্টফোন ও কম্পিউটারে।নিজেদের অজান্তেই বিপদ বাড়ছে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের। তাই মজার ছলেই ধোনিকে সবচেয়ে ‘ভয়ঙ্কর’সার্চ বলে আখ্যা দিয়েছে এই অ্যান্টি-ভাইরাস সংস্থা। ধোনির ঠিক পরেই ভয়ঙ্কর সার্চের তালিকায় রয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর৷

এই বিষয়ে বলতে গিয়ে ম্যাকাফের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ভেঙ্কট কৃষ্ণাপূরণ বলেন, ‘বিনোদন হোক বা খেলা নেটিজেনদের একটা বিশাল অংশই এখন পাইরেটেড কপি ফ্রি-তে দেখতে পছন্দ করে। আর বিপদটা এখানেই লুকিয়ে থাকে। পাইরেটেড কপির বিপদের দিকগুলো আর তারা মাথায় রাখে না৷ ফলে কার্যত নিঃশব্দেই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চলে যায় হ্যাকারদের কাছে।’

মজার ছলে ভয়ঙ্কর শব্দের ব্যবহার করলেও এতেই অশনি সঙ্কেত দেখছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। ২০২০ সালে ভারতের জনসংখ্যার গড় বয়স দাঁড়াবে ২৯৷ ফলে বিশ্বে জনসংখ্যার বয়সের বিচারে প্রথম স্থানে উঠে আসবে ভারত। আর এই তরুণ প্রজন্মের সামনে ইন্টারনেটের অপার দুনিয়া হাতে মুঠোয় চলে আসায় সমস্যা বাড়বে বলে মনে করছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা।

সংস্থার ভাইস-প্রেসিডেন্ট ভেঙ্কট কৃষ্ণাপূরণ আরও বলেন,  ‘তরুণ প্রজন্ম শুধু ফ্রি-তে পাইরেটেড কী ডাউনলোড করা যায় তাই দেখে৷ এর বদলে তাদের থেকে কী চুরি করে নেওয়া হচ্ছে, সে বিষয়ে মাথা ঘামায় না।’ এই হ্যাকিং থেকে রেহাইয়ের উপায়ও বলে দিয়েছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। টরেন্ট হোক বা অন্যান্য পাইরেটেড ওয়েবসাইট যতটা সম্ভব এড়িয়ে যাওয়ারই পরামর্শ দিচ্ছেন বিভিন্ন অ্যান্টি-ভাইরাস সংস্থার আধিকারিকরা।