লজ্জা! গ্লোবাল হাংগার ইন্ডেক্সে পাকিস্তান, বাংলাদেশের থেকেও পিছিয়ে পড়ল ভারত

1383

ওয়েব ডেস্ক, ১৬ অক্টোবরঃ প্রকাশিত হল গ্লোবাল হাংগার ইন্ডেক্স। ১১৭টি দেশকে এই তালিকায় স্থান দেওয়া হয়েছে। দুর্ভগ্যজনকভাবে ভারতের স্থান রয়েছে ১০২ নম্বরে। গোটা বিশ্বের নিরিখে ভারতের স্থান নেমে গিয়েছে বাংলাদেশ, পাকিস্তানের মতো দেশের থেকেও নীচে। ২০১৪ সালে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার সময় ৭৭টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ছিল ৫৫।  

বিশ্ব ক্ষুধা সূচক (‌জিএইচআই)‌ গত ১৩ বছর ধরে এই কাজ করে চলেছে। তাঁরা মূলতঃ অপুষ্টি, শিশু মৃত্যু, শিশু নষ্ট করে দেওয়া এবং শিশুরা ঠিকভাবে বেড়ে না ওঠা এই চারটি বিষয়ের ওপর জোর দিয়ে ক্ষুধা সূচকে দেশগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করে। জানা গিয়েছে, অপুষ্টির কারণে শিশুদের ওজন এবং উচ্চতার ওপর তার প্রভাব পড়ে। যার ফলে পাঁচ বছরের শিশুরা ঠিকভাবে বেড়ে ওঠে না। বেশ কিছু প্রতিবেশী দেশের পেছনে রয়েছে ভারত।  

নতুন এই তালিকা অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কা (৬৬), বাংলাদেশ (৮৮) এবং পাকিস্তান (৯৪)-এর পরে রয়েছে ভারতের স্থান (১০২)।ওয়েল্টহাঙ্গারহিলফে অ্যান্ড কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড নামে যে সংস্থা এই রিপোর্ট তৈরি করেছে, তাদের মতে বিশ্বের যে ৪৫ টি দেশে অভুক্ত থাকার সমস্যা সবথেকে বেশি, তাদের মধ্যে অন্যতম ভারত।

গ্লোবাল হাংগার ইন্ডেক্স রিপোর্টে বলা হয়েছে, অত্যধিক জনসংখ্যার কারণেই আজ ভারতের গ্লোবাল হাংগার ইন্ডেক্স ইন্ডিকেটর পরিসংখ্যানের এই অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতের চাইল্ড ওয়েস্টিং রেটও (২০.৮ শতাংশ) অন্যান্য সব দেশের তুলনায় অত্যধিক বেশি। শুধুমাত্র ভারতের এই অবস্থার জন্যে গোটা দক্ষিণ এশিয়ার অবস্থা সাব-সাহারান আফ্রিকার থেকেও খারাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে।