ঋণের দায়ে আত্মহত্যার মুদির দোকানের মালিকের, শোকের ছায়া পরিবারে

22

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদা: ঋণের দায়ে আত্মহত্যার করল মুদির দোকানের মালিক। ওই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার বৈষ্ণবনগর থানার বেদরাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের লালা পাড়া এলাকায়। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার তার নিজের ঘর থেকে ওই মুদির দোকানের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত ওই দোকানের মালিকের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছেন পুলিশ। ওই ঘটনায় শোকের ছায়া পরিবার সহ গোটা এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মৃত ওই মুদির দোকান মালিকের নাম তন্ময় লালা (২৭)। তার বাড়ি বৈষ্ণবনগর থানার বেদরাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের লালা পাড়ায়। জানা গেছে, বুধবার রাতে বাড়ীতে খাওয়া দাওয়া সেরে নিজ ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন তম্ময় লালা। সকালে অনেক সময় পার হলেও নিজ ঘর থেকে না বেড়ানোই পরিবারের সদস্যরা দেখেন ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে তন্ময়ের দেহ। এরপরে পুলিশ এসে  বেদরাবাদ হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনা প্রসঙ্গে মৃতার বাবা অজিত লালা  জানান, তার ছেলে খুব শান্ত স্বভাবের ছিল কিন্তু তার বাজারে ও বাংকের সাড়ে তিন লক্ষ টাকা দেনা হয়ে যাওযার কারণে সে অবসাদে ভুগছিল বেশ কয়েক দিন ধরে। তার দেনার কথা জানতে পেরে কিছু দেনা ফেরত দেওয়া হয় পাওনা দারদের।

কিন্তু পুর টাকা দিতে না পারায় পাওনা দারেরা চাপ দিচ্ছিল। তাই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে ছেলে। ঘটনার পর বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে এদিন ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। তবে ঠিক কি কারণে আত্মহত্যা তানিয়ে তদন্তে নেমেছে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ।