হেফাজতে এক তরুনের মৃত্যুর ঘটনায় উত্তেজনা পোলবা থানার ঝাপানতলায়

59

বিশ্বজিৎ মন্ডল, হুগলিঃ পুলিশ হেফাজতে এক তরুনের মৃত্যুর ঘটনায় উত্তেজনা পোলবা থানার ঝাপানতলায়। মৃত তরুনের নাম শুভঙ্কর আইচ(২১)। ঘটনায় আরও একজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পোলবা থানার ঝাপানতলা এলাকায়। সপ্তাহ খানেক আগে ওই এলাকার বাসিন্দা রবীন ঘোষের বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনাতেই সন্দেহের তীর ছিলো এলাকার এক ১৭ বছরের কিশোর সৌমেন মালিক এবং শুভঙ্কর আইচের দিকে।

গত রবিবার সেই সন্দেহের বশেই রবীন ঘোষের পরিবার শুভঙ্কর ও সৌমেনকে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। অভিযোগ প্রথমে দুজন সিভিক ভলান্টিয়ার গেলেও দুজনকে ছাড়েনি রবীনের পরিবার। কোনভাবে তাঁদের হাত থেকে পালিয়ে বাঁচে শুভঙ্কর। পরে পুলিশ গিয়ে সৌমেন কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরদিন পুলিশ খোঁজ চালিয়ে শুভঙ্করকেও আটক করে বলে এলাকাবাসীদের দাবী। সোমবার রাতে খোয়া যাওয়া সামগ্রী উদ্ধারের জন্য দুজনকে দড়ি বেঁধে এলাকায় পুলিশ নিয়ে আসে বলে এলাকাবাসীদের দাবী। কিন্তু আজ  পোলবা থানা মারফত এলাকার লোকেরা জানতে পারে শুভঙ্কর পোলবা থানার লকআপেই মারা গেছে। এবং সৌমেন অসুস্থ হয়ে চুঁচুড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এরপরই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকাবাসীরা। রবীনবাবুর পরিবারকে এলাকায় আটকে রেখে মারধর করা হয়। বর্তমানে ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। রবীনের পরিবারের কাউকেই উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এলাকাবাসীদের বক্তব্য প্রথমে রবীন ঘোষের পরিবার মার ও পরে পুলিশের মার এই দুই মারেই মৃত্যু  হয়েছে শুভঙ্করের।