শুরু হল ধূপগুড়ির কালিরহাটে শতাব্দী প্রাচীন বড় কালী মায়ের বাৎসরিক পুজো

0
9

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ১৩ ফেব্রুয়ারিঃ জলপাইগুড়ি জেলা তথা ডুয়ার্সের প্রাচীনতম এবং জাগ্রত কালী মন্দির গুলির মধ্যে অন্যতম ধূপগুড়ি মহাকুমার কালিরহাটের শতাব্দী প্রাচীন বড় কালী মায়ের মন্দির। বড়কালী মাকে ঘিরে রয়েছে বিভিন্ন কথিত কাহিনী। সোমবার গভীর রাত থেকে শুরু হয়েছে কালিরহাট বড় কালী মায়ের বাৎসরিক পুজো।

জানা গিয়েছে,এবছর এই পুজো ১২৫ তম বর্ষে পদার্পণ করল। মঙ্গলবার সকাল থেকে দূর দূরান্তের পূর্ণার্থীরা পুজো দিতে মন্দিরে ভিড় জমিয়েছেন। দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে মন্দিরে প্রবেশ করছেন পূর্ণার্থীরা। প্রথা মেনে প্রতিবছরের মতো এবছরও হচ্ছে শতাধিক পাঁঠা বলি। নিজেদের মনস্কামনা পূরণ করার জন্য মন্দিরে পায়রা উৎসর্গ করছে ভক্তরা। পুজোর পাশাপাশি চলবে পাঁচ দিনব্যাপী মেলা। মন্দিরে পুজো দিয়ে ধূপকাঠি, মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রার্থনা করছে ভক্তরা। প্রতিবছরের মতো এবছরও জলপাইগুড়ি জেলা সহ পার্শ্ববর্তী জেলার বিভিন্ন প্রান্তের পূর্ণার্থীদের ভিড় উপচে পড়েছে। পূর্ণার্থীদের কথায়, বড় কালী মা অত্যন্ত জাগ্রত মায়ের কাছে প্রার্থনা করলে মনস্কামনা পূরণ হয়।

কথিত রয়েছে, আগে দীপাবলিতে পুজো হত। কিন্তু এলাকার এক ব্যক্তির ছেলে হারিয়ে যায়। তিনি মায়ের কাছে মানত করেন যে তার ছেলেকে ফিরিয়ে দিলেই তিনি ফাল্গুন মাসেই মায়ের পুজো দেবেন। হঠাৎ একদিন রাতে এক বৃদ্ধা তার ছেলেকে বাড়িতে নিয়ে আসে। বাড়িতে দিয়ে নিমিষেই হাওয়া হয়ে যায় বৃদ্ধাটি, সেই থেকেই পুজোর সময়ের পরিবর্তন হয়েছে। পুজো এবং মেলায় যাতে অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য মোতায়েন রয়েছে ধূপগুড়ি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here