বিজেপির প্রচারে ক্যা বিরোধী শ্লোগান, অমিতের হস্তক্ষেপে প্রান বাঁচল যুবকের

368

ওয়েব ডেস্ক, ২৭ জানুয়ারিঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ও জাতিয় নাগরিক পুঞ্জি আইন পাশ হওয়ার পর থেকে অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ-কে। এবার দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে বাবরপুর এলাকার জনসভায় বক্তব্য রেখেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। এর এই বক্তব্যর মাঝে দর্শকের আসন থেকে উঠে এক যুবক ক্যা বিরোধী শ্লোগান দিতে শুরু করেন। যার জেরে বিজেপি সমর্থকরা ওই যুবককে ঘিরে মারধর করে বলে জানা গেছে। ওই যুবককে মারধরের হাত থেকে বাঁচানোর হাত থেকে রক্ষা করার প্রধান ভুমিকা পালন করে অমিত।

[ আরও পড়ুনঃ কার্তিক কে তাঁর বিছানায় চান আলিয়া ]

জানা গেছে, বক্তব্যর মাঝে তিনি মঞ্চ থেকে সবাইকে নির্দেশ করেন। তিনি বলেন, যুবকটিকে ছেড়ে দিতে। এরপর আক্রান্ত যুবককে নিজের জায়গায় বসতে বলেন বিজেপি নেতা। আর নিরাপত্তা রক্ষীদের বলেন, যুবকের কাছে পৌঁছে যেতে। এরপর অমিতের নির্দেশে নিরাপত্তা রক্ষীরা ওই যুবককে এসকর্ট করে নিরাপদে সভাস্থল থেকে বের করে দেন। এই ঘটনায় কিছুক্ষণের জন্য বিঘ্ন ঘটলেও তাতে পরোয়া না-করে আগে যুবককে সুরক্ষিত করার ব্যবস্থা করেন অমিত শাহ।

ক্যা বিরোধিতায় এমন প্রতিবাদের পর ঝাঁঝ আরও বাড়িয়ে বিরোধীদের প্রতি তোপ দাগেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘৮ ফ্রেব্রুয়ারি ভোটিং মেশিনের বোতাম টেপার সময় মনের মধ্যে এতটাই রাগ রাখুন যাতে তার কারেন্ট অনুভব করে শাহিনবাগ।’ অমিত আরও বলেন, ‘বিজেপি প্রার্থীকে ভোট দিলে দিল্লি ও দেশ সুরক্ষিত থাকবে এবং শাহিনবাগের মতো হাজার সমস্যার সমাধান হবে।’

[ আরও পড়ুনঃ হেলিকাপ্টার দুর্ঘটনায় প্রান হারালেন বাস্কেটবল খেলোয়াড় ও তার কন্যা সহ ৬ ]

চলতি মাসের গত শুক্রবারও শাহিনবাগ আন্দোলনের প্রতি তোপ দেগে অমিত একই কথা বলেছিলেন। তার জবাবে শীর্ষ কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম বলেন, ‘যাঁরা গান্ধীজিকে অশ্রদ্ধা করেন, শুধু তাঁরাই শাহিনবাগ থেকে মুক্তি পেতে চাইবেন। শাহিনবাগ মহাত্মা গান্ধীর ভাবনার প্রতিচ্ছবি। শাহিনবাগ থেকে মুক্তি পাওয়ার অর্থ অহিংসা ও সত্যাগ্রহ থেকে মুক্তি পাওয়া।’