সরকারি অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষকের দেহ ভেসে উঠল মহানন্দা নদীর ঘাটে

23

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদাঃ রহস্যজনক অবস্থায় সরকারি অবসরপ্রাপ্ত এক স্কুল শিক্ষকের দেহ ভেসে উঠল মহানন্দা নদীর ঘাটে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা শহরের সদরঘাট এলাকায়। এই খবর পেয়ে ওই এলাকায় তদন্তে যায় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তের জন্য মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর ব্যবস্থা করে তদন্তকারী পুলিশ কর্তারা। প্রাথমিক তদন্তের পর ওই বৃদ্ধের নাম ও পরিচয় সনাক্ত করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম প্রদীপ নন্দী (৬৫)। তার বাড়ি পুরাটুলি সদরঘাট বাধরোডে। অবসরপ্রাপ্ত সরকারি স্কুল শিক্ষক শুক্রবার সকালে ঠাকুরের ফুল নিয়ে নদীর পাড়ে গিয়েছিলেন। তারপরই রহস্যজনকভাবে মহানন্দা নদীতে তলিয়ে যায়। কয়েক ঘণ্টা খোঁজাখুঁজির পর অবশেষে ওই বৃদ্ধের মৃতদেহ ভেসে ওঠে। তবে এই ঘটনার পিছনে প্রকৃত কি কারণ রয়েছে, তা নিয়েও তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃত ওই ব্যক্তির মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ।

মৃতের পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, এদিন ভোরে ঠাকুরের ফুল নদীতে ফেলার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে ছিলেন প্রদীপবাবু। এরপর তিনি বাড়িতে ফিরে না আসায় খোঁজখবর শুরু করা হয়। স্থানীয় লোক মারফত জানা যায় নদীর ঘাটে একটি দেহ ভেসে উঠেছে। তারপরে সেই দেহটি সনাক্ত করা হয়। পুরো ঘটনাটি নিয়ে রহস্য দানা বেঁধেছে। পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।