ঝাড়গ্রাম শহরের উড়ালপুলের দু’পাশে শীঘ্রই রাস্তা তৈরি করার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

9

কার্ত্তিক গুহ, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রাম শহরের উড়ালপুলের দু’পাশে শীঘ্রই রাস্তা তৈরি করার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবরার প্রশাসনিক বৈঠক থেকে এমনই নির্দেশ দিলেন মমতা। ঝাড়গ্রাম শহরে উড়ালপুলের দু’পাশে রয়েছে বিভিন্ন দোকানপাট। রাজ্যে তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরে ২০১১ সালের আগষ্ট মাসে শুরু হয় উড়ালপুল তৈরির কাজ। প্রায় সাড়ে ১২ কোটি বরাদ্দ হয় এই উড়ালপুলের জন্য।

২০১৫ মাঝামাঝি উড়ালপুলের কাজ শেষ হয়ে হয়।। শহরের উড়ালপুলটি ৫ নম্বর রাজ্য সড়কের উপর তৈরি হলেও দু’দিকের রাস্তা তৈরি হয়নি এখনও। যার ফলে হাঁটাচলা ও যাতায়াত করা খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে। সরু গলির মধ্যে যাতায়াত করতে যেমন যানজটও হচ্ছে তেমনি রাস্তা তৈরি না হওয়ায় সাধারণ মানুষজনেরও বাজারে ঢুকতে সমস্যা হচ্ছে। প্রায় প্রতিদিনই সমস্যার মুখে পড়তে হয় নিত্য বাজার করতে যাওয়া মানুষজনের। শহরবাসী তাকিয়ে ছিলেন কবে এই প্রতীক্ষার অবসান হবে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী  প্রশাসনিক সভা থেকে ঝাড়গ্রামের জেলাশাসককে এই রাস্তা তৈরির কাজ তাড়াতাড়ি করতে বলেন।

সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঝাড়গ্রাম রেলওয়ে ফ্লাইওভার সার্ভিস রোড ওটাকে দেখেন? মিউনিসিপালিটি?’ উত্তরে জেলাশাসক জানান,‘ওটা ম্যাম পূর্ত দপ্তর (সড়ক)থেকে হচ্ছে। ওখানে জমি কিনতে হবে। আমাদের ডিপার্টমেন্ট থেকে টাকাও পেয়েছে। ওখানে কয়েকজন রায়ত এখানে নেই তাদের সঙ্গে কথা হচ্ছে।’

মুখ্যমন্ত্রী ধমক দিয়ে বলেন, ‘জমি যদি পেয়েছো কেন হচ্ছে না ? এটা পাবলিকের প্রব্লেম হচ্ছে। ইমিডিয়েট ইউ ডু ইট। জেলাশাসক উত্তরে বলেন, ‘হ্যাঁ ম্যাম।’ মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘তাড়াতাড়ি করো। করে আমাকে জানাবে যে আমি করেছি।’