প্রেমিকার সাথে গোপনে দেখা করতে গিয়ে পরিবারের হাতে মার খেয়ে মৃত্যু নাবালক প্রেমিকের

1454

ওয়েব ডেস্ক, ২০ অক্টোবর: ভালোবাসার টানে প্রেমিকার সঙ্গে তারই বাড়িতে দেখা করতে গিয়ে মৃত্যু হলো নাবালক প্রেমিকের। মৃত ওই প্রেমিকের নাম রিপন সরকার(১৭)। জানা গেছে, ওই নাবালক তার ভালোবাসার মানুষের সাথে দেখা গেলে পরিবারের চোখে পড়তেই ঘটল বিপত্তি৷ নাবালিকা প্রেমিকার বাড়ির লোকজন রাগে ক্ষোভে নাবালক প্রেমিককে আটক করে রীতিমত পেটাতে শুরু করে। তারপর তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এমনি মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ত্রিপুরা রাজ্যের গোমতি জেলায়। ওই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আগরতলা থেকে ৮৫ কিলোমিটার দূরে গোমতি জেলায় নিজের কাকার সঙ্গে বসবাস করত বছর সতেরোর ওই কিশোর৷ তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল ওই গ্রামেরই এক কিশোরীর৷ তবে তা মেনে নেয়নি কিশোরীর পরিবার৷ জানা গেছে, এর আগেও নাকি রিপন সরকার নামে ওই কিশোরকে ডেকে মারধর করেছিল তার প্রেমিকার পরিবার৷ বৃহস্পতিবার প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে তার বাড়িতে হাজির হয়েছিল রিপন৷ তবে তা দেখে ফেলে ওই কিশোরীর পরিবার৷ এরপরই তাকে বেধড়ক মারধর করতে শুরু করে তারা৷ মারধরের এই ঘটনা দেখে ছুটে আসে এলাকাবাসীরা৷

 তারা ততক্ষণাৎ খবর দেয় কিশোরের কাকাকে৷ প্রফুল্ল সরকার নামে কিশোরের কাকা এসে উদ্ধার করে কিশোরকে৷ তাকে তড়িঘড়ি ভর্তি করা হয় হাসাপাতালে৷ তবে চিকিত্সকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে৷ ওই ঘটনায় নাবালক প্রেমিকের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে কিশোরীর পরিবারের এক জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ সাত জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছে মামলা৷ পুলিশ জানিয়েছে আরও অনেকে অভিযুক্ত রয়েছে এই ঘটনায়৷ তারা পালিয়ে গিয়েছে৷ তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷