ইস্তফা দিলেন জম্মু-কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপাল,জোর চর্চা

130

ওয়েব ডেস্ক, ৬ আগস্টঃ জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের বর্ষপূর্তির দিনেই ইস্তফা দিলেন উপ-রাজ্যপাল গিরিশ চন্দ্র মূর্মূ।  তিনি তাঁর পদত্যাগপত্র রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। যদিও পদত্যাগপত্রে ইস্তফার কোনও কারণ উল্লেখ করেননি মূর্মূ। আজ বৃহস্পতিবারই শ্রীনগর থেকে দিল্লি ফিরে আসছেন তিনি। ৩৭০ ধারা বর্ষপূর্তির দিনেই জম্মু-কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপালের ইস্তফা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, দেশের বর্তমান কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) রাজীব মেহর্ষি চলতি সপ্তাহেই অবসর নিচ্ছেন। তাঁর জায়গায় পরবর্তী সিএজি হওয়ার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন বিজেপি বান্ধব ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রিয়পাত্র হিসেবে পরিচিত আমলা গিরিশ চন্দ্র মূর্মূ। আর সেই পদে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে যাতে কোনও প্রতিবন্ধকতা না তৈরি হয় তার জন্যই জম্মু ও কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপাল পদে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত,গত বছর ৫ অগস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা অবলুপ্ত করার পাশাপাশি পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদাও কেড়ে নিয়েছিল মোদি সরকার। পরিবর্তে জম্মু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হয়। জম্মু-কাশ্মীরের প্রথম উপ-রাজ্যপাল হিসেবে গত বছরের ৩১ অক্টোবর দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন প্রাক্তন আমলা গিরিশ চন্দ্র মূর্মূ।

গুজরাত ক্যাডারের ১৯৮৫ ব্যাচের আইএএস অফিসার মূর্মূ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, তখন তাঁর প্রধান সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। পরে মোদি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে অর্থ মন্ত্রকের ব্যয় বিভাগের সচিবের দায়িত্বও সামলেছিলেন।