আতশবাজি বাজারের উদ্বোধন হল দিনহাটায়

0
63

দিনহাটা, ৯ নভেম্বরঃ আতশবাজি বাজারের সূচনা হলো দিনহাটায়। এদিন দুপুরে শহরের হরিতকি তলার মাঠ সংলগ্ন এলাকায় আতশবাজি বাজারের সূচনা হয়। এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিনহাটা পৌরসভার চেয়ারম্যান গৌরীশংকর মাহেশ্বরী,দিনহাটা থানার আইসি সুরজ থাপা,# সহ আরো অন্যান্যরা।

এদিন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক রানা গোস্বামী বলেন, দিনহাটার জন্য অতন্ত গৌরবের ব্যাপার যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধোপাধ্যায় এই বাজি এবং নিষিদ্ধ বাজি বিক্রির বিরুদ্ধে একটা সুন্দর ব্যাবস্থা গড়ে তোলার জন্য সারা পশ্চিমবঙ্গ ব্যাপী ‘গ্রিনক্রাকার’বা ‘সবুজ বাজি’ বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং প্রশাসনিক উদ্দগ্যে আমাদের এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখানে আমাদের সাথে উপস্থিত আছেন আইসি সাহেব, চেয়ারম্যান সাহেব, ফায়ার ব্রিগেড।

দিনহাটার বাজি ব্যাবসায়ীদের উদ্দশ্যে তিনি বলেন, কেউ যাতে চড়াদামে বাজি বিক্রি না করে এবং বাজি গুলো যাতে উন্নতমানের হয়। আর কেউ যদি অসৎভাবে বাজি বিক্রি করে তাহলে তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিষিদ্ধ শব্দ বাজি ব্যবহার বন্ধ করতে সাধারণ মানুষের কাছে ও উপস্থিত সকলকে আবেদন জানান। পাশাপাশি এই বাজি বাজার  থেকে বাজি কেনার আবেদনও করেন তিনি।

এবিষয়ে দিনহাটা পৌরসভার চেয়ারম্যান গৌরীশংকর মাহেশ্বরী বলেন, আজ বাজি মেলায় বেশকিছু দোকানের উদ্বোধন হল এবং কয়েকদিনের মধ্যে আরও কিছু দোকানের উদ্বোধন হবে। সরকারি নির্দেশ মেনে আগে যে বাজি আমরা ফাটাতাম তা রাজ্যের সব জায়গায় নিষিদ্ধ করে ‘গ্রিনক্রাকার’ বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়েছে। শব্দ বাজি স্বাস্থের ওপর এবং পরিবেশর ওপর বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। সরকার প্রতিটি জনসাধারণের স্বাস্থ্য সম্পর্কে খুবই সচেতন তাই মানুষের স্বাস্থের প্রতি লক্ষ্য রেখে সরকারের এই উদ্যোগ। পরিবেশ বান্ধব যেসব বাজি আছে মানুষ যাতে সেগুলোই নেয় এবং উৎসবে ব্যাবহার করে। এর বাইরে যদি কেউ অন্য ধরণের বাজি বিক্রি করে বা ওই সমস্ত বাজি যদি কেউ নেয় তাহলে প্রশাসনের তরফ থেকে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here