ঝাড়গ্রামে প্রথম কন্টেইনমেন্ট জোন, ১০ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে দোকানপাঠ

54

কার্ত্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ  পরপর তিনদিন করোনা আক্রান্তের হদিস মেলায় ঝাড়গ্রামে এই প্রথম একটি এলাকাকে কন্টেইনমেন্ট জোন ঘোষণা করল ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, শহরের জুবিলি মার্কেট, সব্জি মার্কেট, সুভাষচক সংলগ্ন মার্কেট, কোর্ট রোড চত্বর এলাকা, স্টেশন লাগোয়া এলাকা কন্টেইনমেন্ট জোনের মধ্যে পড়ছে। এই এলাকায় লকডাউন চলবে।

আপাতত ১০ আগস্ট পর্যন্ত এই এলাকা গুলিতে দোকানপাঠ খোলায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ঝাড়গ্রামের মহকুমা শাসক সুবর্ণ রায় কন্টেইনমেন্ট জোনের এলাকাগুলি ঘুরে ঘুরে দোকান বন্ধ রাখার আবেদন জানাচ্ছে। জুবলি মার্কেট ঢোকার প্রতিটি রাস্তাকে পুলিশি ব্যারিকেড এবং বাঁশ দিয়ে সিল করে দিচ্ছে ঝাড়গ্রাম থানার পুলিশ এবং দমকল বাহিনীর পক্ষ থেকে জুবলী মার্কেট, কোর্ট রোড , সুভাষ পার্ক এলাকা এবং সবজি মার্কেট জীবাণুনাশক দিয়ে স্যানিটাইজেশন করা হয়।

বুধবার রাজ্য জুড়ে সপ্তাহিক লকডাউন রয়েছে সেই কারণে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ঝাড়গ্রাম বাজারের জুবলী মার্কেট , কোর্ট রোড সহ সবজি মার্কেট ব্যাপক সংখ্যক মানুষের ভিড় ছিল ।

ঝাড়গ্রামের মহকুমা শাসক সুবর্ণ রায় বলেন, “আমাদের জেলা শাসক এই এলাকাকে কন্টেনমেন্ট জোন ঘোষণা করেছেন। এখানে কোনও গাড়িও চলবে না। লোকও আসবেন না। ১০ আগস্ট পর্যন্ত তা চলবে।”

রাজ্যের অন্য জায়গায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়লেও ঝাড়গ্রামে বেশ কিছু দিন এই সংখ্যা ২৮-এ আটকে ছিল। ১৫ জুলাইয়ের পর থেকে দীর্ঘ দিন এখানে নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি। তবে গত তিন দিনে সেখানে নতুন করে ৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে ৩৬। তাতেই উদ্বিগ্ন প্রশাসন।