রাজনৈতিক স্বার্থে চলছে খেলা’, ফাঁসির দিন পিছতেই আশাহত : নির্ভয়ার মা

215

ওয়েব ডেস্ক,১৮ জানুয়ারিঃ  বিচারের টানাপোড়নে বিধ্বস্ত  নির্ভয়ার মা। নির্ভয়ার ধর্ষকদের মৃত্যুদণ্ডের দিন ২২ জানুয়ারির পরিবর্তে ধার্য করা হয়েছে ১ ফেব্রুয়ারি। শুক্রবার ফাঁসির নয়া দিন ঘোষণা করে পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। ওইদিন সকাল ৬টায় তিহার জেলে চারজনকে একসঙ্গে ফাঁসির দড়িতে ঝোলানো হবে। একাধিক আইনি জটিলতা থাকার দরুন তা পিছিয়ে যায়।  অপরাধী মুকেশ সিং মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরোধিতায় সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন ফাইল করে। রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আরজিও জানায়। তার জেরেই পিছিয়ে যায় ফাঁসি কার্যকর করার প্রক্রিয়াটি। আর তা নিয়েই তীব্র হতাশা প্রকাশ করেছেন  নির্ভয়ার মা।

তিনি তাঁর মেজাজ হারিয়ে বলেন “তারিখের পর তারিখ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সুবিচার এখনও পাওয়া গেল না। শুধু দোষীদের দিকটাই দেখা হচ্ছে। আর ভুগতে হচ্ছে আমাদের।” এদিন কোর্টের দেওয়া রায়ের পরই কান্নায় ভেঙে পড়েন নির্ভয়ার মা । তিনি বলেন, “দোষীরা যা চায়, সেটাই হচ্ছে। তারিখের পর তারিখ পাচ্ছি। আমাদের আইন প্রক্রিয়ায় দোষীদের কথাই বেশি ভাবা হচ্ছে। যারা আমার মেয়ের সঙ্গে এমনটা করল  তাদের হাজারো অপশন দেওয়া হচ্ছে। তাহলে আমাদের কি কোনও অধিকার নেই?

এছাড়াও, নিজেকে ফের নাবালক বলে দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন ফাইল করে পবন শর্মা। সেই আবেদন তৎক্ষণাৎ খারিজ করে দেওয়া হয়। তার জেরেই ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি দেওয়ার দিনক্ষণ ঘোষণা করে কোর্ট। এরপরই অভিযুক্তর পক্ষে, রাষ্ট্রপতির কাছে পবনের প্রাণভিক্ষার আবেদন জানানোর সম্ভাবনা থাকছে। তাতেও কিছুটা সময় পিছোতে পারে বলে অনুমান আশাদেবীর। তাই যতক্ষণ না ফাঁসির দড়ি ধর্ষকদের গলায় পরানো হচ্ছে, ততক্ষণ নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না নির্ভয়া মা।