দমকল দিয়ে প্রতিমা গলিয়ে প্রতিমা নিরঞ্জন জলপাইগুড়িতে

61

সায়ন সেন, জলপাইগুড়িঃ জলপাইগুড়ি জেলার সব চেয়ে বড় দুর্গা প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য বেছে নিল এক অন্য রকম উপায়। এবার জলপাইগুড়ি জেলার সবচেয়ে বড় মূর্তি তৈরি করেছিলো জলপাইগুড়ি মহুরী পাড়া সার্বজনীন দূগা পুজো কমিটি, এই ঠাকুর প্রায় ৩০ ফুটের বেশি উচ্চতা বিশিষ্ট। আর এই ঠাকুর নিরঞ্জন করতে তারা বেছে নিল দমকলের সাহায্যে প্রতিমা গলিয়ে। এদিকে এই অভিনব কায়দায় প্রতিমা নিরঞ্জন দেখতে ভিড় জমিয়েছেন ওই এলাকা সহ আসে পাশের এলাকার মানুষেরা।

ক্লাব সূত্রে জানা যায়, এবাড় তাদের প্রতিমা প্রায় ৩০ ফুটের বেশি উচ্চতা বিশিষ্ট এত বড় প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য কোন বিশেষ ব্যবস্থা নেই জলপাইগুড়ি জেলায়। আব্র এই প্রতিমা জলপাইগুড়ির এক মাত্র নদী করলা নদীতে নিরঞ্জন করতে হবে তার কিন্তু এত বড় প্রতিমা নিয়ে যাওয়ার কোন শুব্যবস্থা না থাকায় তারা দমকলের সাহায্যে প্রতিমা নিরঞ্জনের ব্যবস্থা করেছেন।

ক্লাব সদস্য জানান, এবারের তাদের দুর্গা প্রতিমা সবার থেকে একটু আলাদা, তারা এরবার তাদের প্রতিমা নিজেদের পুজার মণ্ডপের ভেতরেই বাইরের শিল্পীদের দিয়ে তৈরি করেছেন। তাদের প্রতিমা প্রায় ৩০ ফুটের বেশি উচ্চতা বিশিষ্ট। কিন্তু তারা নিরঞ্জনের জন্য এত বড় প্রতিমা নদীতে নিয়ে যাওয়ার মতো কোন ব্যবস্থা না থাকায় তারা দমকলের সাহায্য নিয়েছেন প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য। তিনি আরও বলেন, এই কাজে তারা দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুকে ফোন করেছিলেন। দমকল মন্ত্রী সব রকম ভাবে তাদের সাহায্য করেছেন বলে জানান ওই ক্লাব সদস্য। তিনি বলেন, এত বড়ো প্রতিমা, ভিড় এড়ানো ও বাইরে নদীতে নিরঞ্জন দেওয়া প্রায় অসম্ভব। তাই বিশেষ সরকারি অনুমতি নিয়ে দমকল দিয়ে প্রতিমা গলিয়ে এখানেই নিরঞ্জনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরজন্য পাচজন দমকল কর্মী ও একটি ইঞ্জিন এখানে আনা হয়েছে।