৫ রাজ্যের উপনির্বাচনে কংগ্রেসী দাপটে কুপোকাত বিজেপি

1222

ওয়েব ডেস্ক, ২৫ অক্টোবর: কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদীর দ্বিতীয়বার সরকার গঠনের পর কংগ্রেস একে বারে নিশ্চিহ্ন হয়েছে বলে মনে করে অনেকে। লোকসভা ভোটের কয়েক মাসের মধ্যে বিধানসভা উপনির্বাচনে অপ্রতিরোধ্য কংগ্রেস। তা কেউ স্বপ্নেও ভাবতে পারে নি। শুধু রাজস্থানেই নয়, মধ্যপ্রদেশ, পাঞ্জাব ও ছত্তিশগড়ে বিজেপির মুখ থেকে জয় ছিনিয়ে নিতে সক্ষম দলীয় প্রার্থীরা। ফল ঘোষণার পরে উচ্ছ্বাসে ভাসলেন দলের নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। গতকালের উপনির্বাচনের পর আজ বিস্তারিত ফলাফল নিয়ে আলোচনা….

পঞ্জাব উপনির্বাচন: ফাগওয়ারা এবং জালালাবাদ বিধানসভা কেন্দ্র মূলত অকালি দলের বিশ্বস্ত ঘাঁটি হিসেবেই এতদিন পরিচিত ছিল। এবারের উপনির্বাচনে সেখানেই জয়লাভ করলেন কংগ্রেস প্রার্থী রামিন্দর আওলা। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সন্ত অকালি দলের প্রার্থী রাজ সিং ডিবিপুরাকে তিনি ১৬,৬৩৩ ভোটের ব্যবধানে পরাস্ত করেন। অন্যদিকে, মুকেরিয়ান কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী জাঙ্গি লাল মহাজনকে ৩,৪৪০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন কংগ্রেস প্রার্থী ইন্দু বালা। ওই কেন্দ্রের কংগ্রেস বিধায়ক রজনীশ কুমার বাব্বির মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। ইন্দু বালা বাব্বিরই স্ত্রী।

উত্তরপ্রদেশ উপনির্বাচন: ১৭৫ লখনউ ক্যান্টমেন্ট আসনে জয়লাভ করেছেন বিজেপি প্রার্থী সুরেশ চন্দ্র তিওয়ারি। তিনি মোট ৩৫,৪২৮ ভোটের ব্যবধানে তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীকে পরাজিত করেন। গঙ্গোহ কেন্দ্রের উপনির্বাচনে ৫,৪১৯ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন আর এক বিজেপি প্রার্থী কিরাত সিং। জইদপুর কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী অমরীশকে ৪,১৬৫ ভোটে পরাজিত করেন সমাজবাদী পার্টি প্রার্থী গৌরব কুমার।

বিহার উপনির্বাচন: সিমরি বখতিয়ারপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচনে শাসকদল জেডিইউ প্রার্থী অরুণ কুমারকে ১৫,৫০৮ ভোটে পরাজিত করেছেন বিরোধী আরজেডি প্রার্থী জাফর আলম। ওই কেন্দ্রের বিধায়ক জেডিইউ নেতা দীনেশ চন্দ্র যাদব লোকসভা নির্বাচনে মাধেপুরা কেন্দ্র থেকে জিতে সংসদ নির্বাচিত হওয়ার পরে উপনির্বাচনের আবশ্যকতা দেখা দেয়।

মধ্যপ্রদেশ উপনির্বাচন: মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া কেন্দ্র বরাবরই কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি। উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির ভানু ভুরিয়াকে ২৭,৮০৪ ভোটে পরাজিত করলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা কান্তিলাল ভুরিয়া। তবে নির্বাচনের ময়দানে প্রথম লড়তে নেমে পোড়খাওয়া রাজনীতিককে যথেষ্ট বেগ দিয়েছেন ভানু ভুরিয়া। এদিন গণনার সময় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখা গিয়েছে কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে।

ফল ঘোষণা করার পরে দেখা গিয়েছে, মোট ৯৬,১৫৫টি ভোট পেয়েছেন কংগ্রেস প্রার্থী আর তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থীর মোট প্রাপ্য ভোটের সংখ্যা ৬৮,৩৫১টি। গত লোকসভা নির্বাচনে ঝাবুয়ায় বিজেপি জি এস দামোরের কাছে পরাজিত হয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা কান্তিলাল ভুরিয়ার ছেলে বিক্রান্ত ভুরিয়া। মোট ১০,৪৩৭ ভোটে জয়লাভ করেন দামোর। পরে আদিবাসী অধ্যুষিত ঝাবুয়ার বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন দামোর, যার ফলে উপনির্বাচনের আশ্যকতা দেখা দেয়।

ছত্তিশগড় উপনির্বাচন: উপনির্বাচনে কংগ্রেসের জয় অব্যাহত ছত্তিশগড়েও। রাজ্যের একমাত্র আসন চিত্রকোটেও জয়লাভ করেছেন কংগ্রেস প্রার্থী। এমত অবস্থায় কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে পড়েন বিজেপি নেতৃত্বেরা। কারণ তারা চেয়ে ছিল ২০১৪ সালের সেই রাজনৈতিক রণকৌশলে দিয়ে এই বৈতরণী পার হতে চেয়েছে বিজেপি। কিন্তু তাদের এই ভোট স্বপ আর বাস্তবে পূরণ হলো না বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।