মোদী সরকারের অগ্নিপরীক্ষা, আজ রাজ্যসভায় পেশ হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল

364

ওয়েব ডেস্ক, ১১ ডিসেম্বরঃ সাত ঘন্টার তীব্র বিতর্কের পর অবশেষে সোমবার মধ্যরাতে লোকসভায় পাস হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)। এবার রাজ্যসভায় অগ্নিপরীক্ষা দিতে হবে নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহদের। জানা গিয়েছে, আজ বুধবার দুপুর ২টোয় রাজ্যসভায় পেশ হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল।

লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে বিজেপির। বিলের পক্ষে সেখানে পড়েছে ৩১১ ভোট, ৮০টি ভোট পড়েছে বিলের বিরুদ্ধে, তবে রাজ্যসভায় বিজেপির সাংসদ সংখ্যা কম। বর্তমান পরিস্থিতিতে সংসদের উচ্চকক্ষের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে প্রয়োজন ১২১। এনডিএ-র পক্ষে রয়েছেন ১১৬ জন সাংসদ, অন্যান্যদের মধ্যে থেকে ১৪ জন সাংসদ নিয়ে তারা ১৩০-এ পৌঁছোবে বলে আশা কেন্দ্রের শাসকদলের। ১৪ জন সাংসদের মধ্যে রয়েছেন বিজেপির প্রাক্তন জোটসঙ্গী শিবসেনা। লোকসভায় বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছে তারা। তবে রাজ্যসভায় বিলের পক্ষে তারা ভোট দেবে কিনা, তা নিশ্চিত নয়। জোটের বাইরে থাকা দল বা সাংসদদের মধ্যে রয়েছেন নবীন পট্টনায়েকের বিজেডির ৭ জন সদস্য। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ-এর পক্ষে রয়েছেন ৬৪ জন সাংসদ, এছাড়াও অন্যান্যদের তরফে ৪৬ জনের সমর্থন মিলবে বলে আশা কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোটের। তাদের মধ্যে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস, সমাজবাদি পার্টি, তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি, এবং সিপিআইএম, ফলে ইউপিএ-এর সংখ্যা গিয়ে পৌঁছাবে ১১০।

সূত্রের খবর, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে রাজ্যসভায় বিরোধী শিবিরের হয়ে প্রথম বক্তব্য রাখবেন কংগ্রেস সাংসদ ও বিশিষ্ট আইনজীবী কপিল সিবাল৷ কেন নাগরিকত্ব বিলটি সংবিধানের মৌলিক ধারার পরিপন্থী তা বোঝাবেন৷ এর পরে তৃণমূলের তরফে বিলটির বিরোধিতা করবেন রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন৷ সর্বভারতীয় প্রেক্ষাপটের পাশাপাশি রাজ্যের পটভুমিকাতে এই বিলটিকে কেন তাঁরা জনস্বার্থ বিরোধী বলে মনে করছেন, তার বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেবেন তিনি৷