পাওয়ানা টাকা না দিতে পারায় খুন যুবক

77

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনাঃ সময় মতো ৫০০০ টাকা দিতে না পারায় এক যুবককে খুন করল দুষ্কৃতীরা।  ঘটনাটি ঘটেছে, বসিরহাট মহকুমার সাকদা গ্রামের বিদ্যাধরী চরপাড়ায়।

গতকাল সন্ধ্যায় বাবুর আলী গাজী নামে ২৭ বছরের ওই বাড়ি থেকে বেরিয়ে  নিখোঁজ হয়ে যায়। শনিবার সকালে ওই যুবকের দেহ উদ্ধার হয়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে মিনাখা থানার পুলিশ। পরে তাঁরা এসে ওই যুবকের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠায়।

জানা গেছে,  ওই যুবকের কাছে ঋণের টাকা পেত একই গ্রামের বাসিন্দা ওয়েদ আলী মোল্লা। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিল ওই যুবক। বাড়ির লোক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে খুঁজে পাওয়া পায়নি। এদিন ভোরে বিদ্যাধরী চরপাড়ার রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। তার দেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও জানা গেছে।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মিনাখাঁ সাকদা গ্রামে বাসিন্দা ওয়েদ আলী মোল্লার কাছে সুদ বাবদ ৫০০০ টাকা পেত। এদিন ওয়েদ মোবাইলে তাকে ডাকলে সে বেরিয়ে যায়। আজ সকালবেলা বিদ্যাধরীর চর থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মৃত বাবুর আলীর মা জানান, আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে মোবাইলে ডেকে খুন করে নদীর চরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তবে এটা আত্মহত্যা, না খুন তার তদন্ত শুরু করেছে মিনাখা থানার পুলিশ।