জারি হল এনএসএ, কারণ না দেখিয়েও পুলিশকে দেওয়া হল আটক করার অনুমতি

194

ওয়েব ডেস্ক, ১৮ জানুয়ারিঃ  সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের মাঝেই তিন মাসের জন্য দিল্লিতে জাতীয় নিরাপত্তা আইন (এনএসএ) জারি করতে পুলিশকে নির্দেশ দিলেন লেফটেন্যান্ট গভর্নর।

এই আইনের দ্বারা জাতীয় নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক মনে করলে যে কোনও ব্যক্তিকে দীর্ঘ দিনের জন্য আটক করতে পারে পুলিশ। শুধু তাই নয়, ১০ দিন গ্রেফতারের কারণ সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে না জানানোর ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে পুলিশকে।

বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে বিশদে না জানানো হলেও কেন্দ্রীয় সরকারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, প্রশানের এই পদক্ষেপ নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ এবং সময় অনুযায়ী তা পুনর্নবীকরণ করা হয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের অগস্ট মাসে সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদ হওয়ায় সদানীন্তন জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যকে ভেঙে দু’টি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার পরে জম্মু ও কাশ্মীর অঞ্চলে জাতীয় নিরাপত্তা আইন (এনএসএ) জারির মেয়াদ বাড়িয়ে দেওয়া হয়। তার জেরে জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে উপত্যকায় যে কোনও ব্যক্তিকে গ্রেফতারের অনুমোদন পায় পুলিশ। আর তাই এবার জারি হল দিল্লিতে।

শনিবার দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নররের দফতর থেকে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘১৯৮০ সালের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের ৩ নম্বর ধারার (৩) উপধারা ও ২ নম্বর ধারার (সি) উপধারায় লেফটেন্যান্ট গভর্নর ১৯ জানুয়ারি থেকে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত দিল্লি পুলিশ কমিশনারকে উল্লিখিত আইনের (২) উপধারা ও ৩ নম্বর ধারা প্রদত্ত ক্ষমতাবলে আটক করার অনুমোদন জারি করছেন।