পঞ্চায়েতের দুর্নীতি ধরা পরলে দলীয় প্রতিনিধিদেরও জেলে পাঠানো হবেঃ অনুব্রত

88

পার্থ দাস,বীরভূমঃ বিজয়া সন্মেলনী মঞ্চ থেকে দলীয় পঞ্চায়েত প্রতিনিধিদের কড়া বার্তা দিলেন অনুব্রত। রবিবার বীরভূম জেলার মহঃবাজারের কাপিস্টা পঞ্চায়েতের বলিহারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে তৃণমূল কংগ্রেস এই বিজয়া সন্মেলনী  আয়োজন করে। এই সন্মেলনী উদ্বোধন করেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

বিজয়া সন্মেলনী মঞ্চ  থেকে এদিন তিনি স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান, পঞ্চায়েত সদস্য ও দলের নেতৃত্বদের কড়া ভাষায় জানিয়ে দেন, “এলাকার সাধারণ মানুষকে পরিষেবা পৌচ্ছে দিতে হবে সঠিক সময়ে।  কোন নাগরিককে বঞ্চিত করে অন্য নাগরিকদের একাধিক বার সুযোগ পাইয়ে দেওয়া চলবে না। পঞ্চায়েতের কোনো রকম দুর্নীতি সহ্য করবে না দল। প্রয়োজনে দুর্নীতি প্রমান হলে পঞ্চায়েত সদস্যদের জেল খাটতে হবে। তৃণমূল না হলেও সেই গরীব মানুষকে সরকারি সুযোগ দিতে হবে বলেও মন্তব্য করেন অনুব্রত।

রামপুরহাট বিধানসভার ছটি পঞ্চায়েতের তৃণমূল কর্মীদের নিয়ে মূলত এই সন্মেলনী  হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ছাড়াও জেলার দুই সহ-সভাপতি অভিজিৎ সিনহা ও মলয় মুখোপাধ্যায়, মন্ত্রী আশীষ বন্দ্যোপাধ্যায়,  জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরী সহ অন্যরা।

সভায় কর্মীদের কড়া বার্তা দেওয়া ছাড়াও অনুব্রত মণ্ডল এনআরসি নিয়ে মোদি সরকারকে আক্রমণ করে বলেন, “মোদি সরকার আবার এনআরসি নিয়ে আসার কথা বলছেন। তিনি চেষ্টা করুক তাতে আমাদের কোন আপত্তি নেই। তিনি আনতেই পারেন। কিন্তু আমাদের শরীরে এক বিন্দু রক্ত থাকতে পশ্চিমবাংলায় এনআরসি চালু করতে দেবো না।