বীরভূমে কয়লা শিল্প গড়া নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতর

60

পার্থ দাস, বীরভূমঃ অনেকটা সিঙ্গুরের তৃণমূলের আন্দোলনের ধাঁচে বীরভূমে পথে নামতে চাইছে সিপিএম নিয়ন্ত্রিত শ্রমিক সংগঠন সিটু। একদিকে ডেউচা পাঁচামী কয়লা শিল্প গড়তে বদ্ধপরিকর রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষনার পরই ওই এলাকায় কয়লা শিল্প গড়া নিয়ে  বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। এদিকে বীরভূমেও ওই কয়লা শিল্প নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতর। রাজ্য সরকারের এই নয়া পরিকল্পনার গলদের কথা উল্লেখ করে সাধারণ মানুষের কাছে যাচ্ছে সিপিএম।

যে এলাকায় এই শিল্প গড়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে সেটা আদিবাসী অধ্যুসিত অঞ্চল। সেখানে তাঁদের সাথে কথা না বলে কোন ভাবেই শিল্প গড়া যাবে না বলে হুশিয়ারি দিল বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের দল। শিল্প ভবিষ্যৎ এই স্লো গানকে নিয়ে এই সময় বামফ্রন্টের সরকার অনেকটাই এগিয়েছিল। অথচ সেই দলেরই এধরনই আন্দোলন নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

যদিও সিপিএমের সাফ কথা এক শিল্প গড়তে গিয়ে অন্য শিল্পের ধ্বংস গড়তে দেব না আমরা। তাঁদের অভিযোগ ওই শিল্প গড়া হলে এখানকার প্রচুর কৃষি জমি ধ্বংস হবে। পাথর খাদান বন্ধ হয়ে যাবার আশংকা রয়েছে। এসবের সাথে ওই এলাকার মানুষের রুটি রুজির প্রশ্ন রয়েছে। তাই এলাকার মানুষের সাথে কথা না বলে এখানে কারখানা গড়া যাবে না বলে হুশিয়ারি দেন সিপিএম নেতারা। বৃহস্পতিবার সিউড়িতে অবস্থিত জেলা সিআইটিইউ কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে সিটু নেতৃত্ব।

সংগঠনের জেলা সম্পাদক দীপঙ্কর চক্রবর্তী এই সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, তারা শিল্প গড়ার বিপক্ষে নয়। কিন্তু ওই এলাকায় শিল্প করতে হলে স্থানীয় মানুষের সঙ্গে কথা বলে, এবং তাঁদের বিকল্প ব্যবস্থা করে এই কয়লা শিল্প গড়তে হবে।