দরজায় তালা ভেঙ্গে ঘরের ভিতরে ঢুকে চুরি করে পালাল দুষ্কৃতীরা

80

বোলপুর, ১৭ অক্টোবরঃ ঘরে ফিরতেই দেখলেন দরজার তালা ভাঙা। ঘরের ভিতরে সমস্ত জিনিস লণ্ডভণ্ড। তাহলে কী ঘরে কেউ না থাকার সুবাদে চোরের দল কী চুরি করেছে? বুঝতে পেরেই গৃহকর্তা খবর দেয় বোলপুর থানায়। পরে বোলপুর থানার পুলিশ এসে তদন্ত শুরু করেন। চাঞ্চল্যকর এই চুরির ঘটনাটি ঘটেছে বোলপুর থানার অন্তর্গত বোলপুরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সবুজ পল্লীর বাসিন্দা প্রশান্ত দাসের বাড়িতে।

গৃহকর্তা প্রশান্ত দাস জানান, ‘দুর্গাপুজোর মহাষ্টমীর দিন থেকে বাড়িতে কেউ ছিলাম না। আমরা সপরিবারে বাইরে ছিলাম। আজ সকাল ১১ টা নাগাদ আমরা বাড়িতে ফিরে আসি। ফিরে এসে দেখি বাইরের দরজার তালাটা ভাঙ্গা রয়েছে। এরপর বাড়িতে ঢুকে দেখি বাড়ির সমস্ত জিনিসপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে।  এরপরেই বুঝতে পারি বাড়িতে কারোর না থাকার সুযোগে হানা দিয়েছে চোরের দল। আমার বাড়ি থেকে চুরি গেছে, বেশকিছু জিনিসপত্রসহ নগদ টাকা। এরপর আমি বোলপুর থানায় খবর দি। ওনারা আসেন ও তদন্ত শুরু করেন।’

গৃহকর্তা প্রশান্ত দাসের স্ত্রী সুমিত্রা দাস জানান, “বাড়ির প্রতিটি দরজায় তালা ভেঙে চোরের দল তন্ন তন্ন করে সবকিছু খুঁজেছে। আমার বাড়ি থেকে ৩০ টির মতো কাঁসার থালা এবং ৩০ থেকে ৪০ টি কাঁসার বাটি তারা নিয়ে গেছে। এছাড়াও নগদ ১০ হাজার টাকা ছিল সেটাও নিয়ে গেছে। তবে এইরকম ঘটনা এই প্রথম। আগে অনেকবার বাড়িতে তালা দিয়ে অনেকদিন ধরেই এইভাবে ঘুরতে গেছি কিন্তু এইরকম ঘটনা আগে ঘটেনি।”

স্থানীয় এক প্রতিবেশী জানান, “যা দিনকাল পড়েছে তাতে বাড়ি ছেড়ে যেতেই ভয় লাগে।” এমন ঘটনায় বোলপুরের প্রশাসনিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। তাদের অভিযোগ,বোলপুর থানা থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে কী করে এমন ঘটনা ঘটলো ?