কোচবিহার সহ গোটা উত্তরবঙ্গের জন্যে প্রচুর স্পেশাল বাস চালাবে রাজ্য পরিবহণ দফতর

252

ওয়েব ডেস্ক, ১৭ অক্টোবরঃ যারা পুজোর ছুটিতে বেড়াতে যেতে চান উত্তরবঙ্গে তাদের ভরসা জোগাচ্ছে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগম। ফলে দার্জিলিং হোক বা আলিপুরদুয়ার ভরসা সেই সরকারি বাস।

লকডাউন অধ্যায়ে নিয়ন্ত্রিত ট্রেন চলাচল। একমাত্র স্পেশাল ট্রেন যাতায়াত করছে। আগামী কয়েকদিন ধরে চালু আছে ফেস্টিভ্যাল স্পেশাল। সেই তালিকায় উত্তরে যাওয়ার জন্যে দার্জিলিং মেল স্পেশাল আছে। অন্যদিকে পদাতিক স্পেশাল চলছে। কিন্তু যত সংখ্যক মানুষ বেড়াতে যেতে চান বা যাবেন তার সাথে যোগ হবে পুজোয় বাড়ি ফেরার ভিড়। ফলে সব মিলিয়ে পুজোয় ট্রেনে চেপে উত্তরে যাওয়ার সুযোগ কম।

তার মধ্যে নয়া নিয়মে সংরক্ষিত আসন ছাড়া ট্রেনে ওঠা যাবে না। আর এই অবস্থায় মুশকিল আসান হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজ্য সরকারি পরিবহন নিগম উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগম। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, যাত্রী চাহিদা এতটাই বেশি যে এন বি এস টি সি ২৩ টি স্পেশাল বাস চালানো শুরু করেছে। মালদহ, রায়গঞ্জ, বালুরঘাট, শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার রুটে চালানো হচ্ছে এই সব বাস।

নিগমের এসপ্ল্যানেড ডিপোর এক আধিকারিক জানিয়েছেন, লক্ষ্মীপূজা অবধি বুকিং পুরোপুরি হয়ে গিয়েছে। কোনও আসন ফাঁকা নেই। বিশেষ করে শিলিগুড়িগামী বাসের।

নিগম সূত্রে খবর, তারা পঞ্চমী থেকে চাহিদা অনুযায়ী আরও বাসের সংখ্যা বেশ কয়েকটি রুটে বাড়িয়েছেন। এই সব বাসের টিকিট অনলাইনে যেমন বুকিং করা যাচ্ছে, তেমনই কাউন্টারে গিয়েও বুক করা যাচ্ছে৷ নন এসি, এসি, এসি ভলভো ও রকেট সব বাস। পুজোর মরসুমে এন বি এস টি সি’র বাসের এই চাহিদা দেখে খুশি রাজ্য পরিবহন নিগম। যাত্রীদের একাংশ ভীষণ খুশি এই পরিষেবা মেলায়।

যাত্রীদের একাংশের মধ্যে এক ব্যক্তি জানান, “দার্জিলিং বেড়াতে যাওয়ার জন্য ট্রেনের টিকিট পেলাম না। এসি ভলভো পেয়ে গেলাম। নিশ্চিন্তে শিলিগুড়ি চলে যাব।” একই বক্তব্য ধীরাজ রায়ের। তিনিও জানাচ্ছেন,” ছুটিতে বাড়িতে আলিপুরদুয়ার যাব। ট্রেনের টিকিট পেলাম না। তাই ভরসা বাসই। ফলে উত্তরে যাওয়ার ট্রেন না মিললেও বাসেই ভরসা মানুষের।”